বাংলা সিরিয়াল

‘উর্মি যাবে বিয়ে করতে! বরটা হবে কে? ফান্দে পড়িয়া টুকাই কাঁদতে বসেছে!’-জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ এর নতুন প্রোমো তে ব্র্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকের জায়গায় ছড়া শুনে হতবাক দর্শকরা

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক আমাদের এই পথ যদি না শেষ হয়। এই ধারাবাহিকের উর্মি আর সাত্যকির জুটি সকলের খুব পছন্দের। এই ধারাবাহিকে প্রথম থেকে দেখা গিয়েছিল যে, প্রতিটি পরিস্থিতিতে উর্মির পাশে দাঁড়িয়ে ছিল সাত্যকি। উর্মি যখন প্রতি কাজে ভুল করতো তখন সাত্যকি তাকে সব সময় শুধরে দিত এবং আত্মবিশ্বাসী হওয়ার কথা বলতো। এইভাবে আস্তে আস্তে অনেক বেশি ম্যাচিউরড হয়ে যায় এবং দায়িত্ব নিতে শিখে‌, আজকের এই যা কিছু হয়েছে তা পুরোটাই সাত্যকির জন্য আর এই দায়িত্বশীল উর্মিকেই আজ ভালোবেসেছে পবন ভাটিয়া।

অন্যদিকে সাত্যকি এক্সিডেন্ট এরপর শারীরিকভাবে অক্ষম হয়ে যাওয়ায় নিজেকে উর্মির অযোগ্য ভাবতে শুরু করে এবং পবনের হাতে ঊর্মিকে তুলে দেয় বিয়ে করার জন্য। উর্মির সুখের জন্য সে সব রকম স্বার্থ ত্যাগ করতে প্রস্তুত। উর্মি পবন ভাটিয়া কে তার আর সাত্যকির ভালোবাসার গল্প বলে বুঝিয়ে দেয়- ভালোবাসা আসলে কী? পবন নিজের ভুল বুঝতে পারে যে, ভালোবাসা মানে‌‌ হলো স্বার্থত্যাগ।

অন্যদিকে সাত্যকি কে টাইট করার জন্য উর্মির মাথায় দুষ্টু বুদ্ধি খেলে যায়। সে সাত্যকিকে জানায় যে, সে পবনকে বিয়ে করবে তবে তাকেই বরকর্তা হতে হবে। তার দুষ্টু বুদ্ধির পাল্লায় পড়ে নাজেহাল হয়ে যায় পবন আর সাত্যকি।

সম্প্রতি এই ধারাবাহিকের একটি প্রোমো দিয়েছে যেখানে দেখানো হচ্ছে যে বিয়ের কনের সাজে সেজে উঠেছে উর্মি আর সাত্যকি ও পবন দুজনেই বর বেশে উপস্থিত হয়েছে, কী হবে বিয়ের রাতে সেটাই দেখার! ব্যাকগ্রাউন্ড আবার বলা হচ্ছে “ঊর্মি যাবে বিয়ে করতে, বরটা হবে কে? টুকাই পবন দুজনাতে কোমড় বেধেছে!
বিয়ে দিতে গিয়ে বউয়ের, আচ্ছা ফেসেছে
ফান্দে পড়িয়া টুকাই কাঁদতে বসেছে”

 

View this post on Instagram

 

A post shared by mithai prem (@mithailoves)

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।