বাংলা সিরিয়াল

‘চড়ুই আর ফুল মিলে এইবার তৈরি করবে অল‌ ইন্ডিয়া সতীন এসোসিয়েশন-দুই সতীনে এত মিল এর আগে দেখি নি কোনো সিরিয়ালে’ধুলোকণায় ফুল চড়ুইয়ের বন্ডিং দেখে বলছেন নেটিজেনদের একাংশ

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ধুলোকণা। এই ধারাবাহিকে দেখা যায় যে, সমুদ্রে বেড়াতে গিয়ে চান্দ্রেয়ীর ষড়যন্ত্রে সমুদ্রে ডুবে যায় লালন তারপর তাকে স্মৃতি ভ্রষ্ট অবস্থায় উদ্ধার করে ডাক্তারবাবু। তিনি অনেক চেষ্টা করেন লালনের স্মৃতি ফেরানোর কিন্তু সেটা সম্ভব হয় না। এরপর ডাক্তারবাবু তার মেয়ে তিতিরের সাথে লালনের একটি নকল বিয়ে দেওয়ার নাটক করেন। এই দিন ফুলঝুরি লালনের পরিবারকে নিয়ে হাজির হয় সেখানে। কিন্তু কিছুতেই লালনের স্মৃতি ফেরে না। সে তিতির কে লিপস্টিক দান করে বিয়ে করে- এই দৃশ্য দেখে ফুলঝুরি একরাশ অভিমান করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। সে বলে এরপর লালন কেই তার কাছে আসতে হবে সে আর কখনো লালনের সামনে আসবে না।

এরপর দেখা যায় ফুলঝুরি বাড়ি ফিরে একদম পাগলামি করতে থাকে সে নিজের সিঁদুর মুছে ফেলতে চায়, তখন বড় মামি তাকে বোঝায় আর চড়ুই তাকে আবার নতুন করে গান শুরু করবার জন্য উৎসাহিত করে। এই দৃশ্য দেখার পর দর্শকমহলের মিশ্র প্রতিক্রিয়া নজর কেড়েছে। একদল এই দৃশ্য দেখে রীতিমতো মুগ্ধ অন্যদল হাসাহাসি করছেন ট্রোলিং করছেন। ধুলোকণায় চড়ুই আর ফুলের মিল দেখে একদল মানুষ যেখানে বলছেন,“ ধূলোকণার আজকের এপিসোডটা দেখুন সব রাগ দূর হয়ে যাবে।তিতিরকে দেখে মনে হচ্ছে পজেটিভ।তিতিরের রহস্যময়ী আচরণ অন্যদিকে কনকলতায় দূর্দান্ত ড্রামা।

আজকে চড়ুই এর কথা শুনে চোখে জল চলে এসেছিল।খুবই ইমোশনাল এপিসোড।চড়ুই চরিত্রটাকে এতটা ভালো ভাবে প্রেজেন্ট করলো লীনা গঙ্গোপাধ্যায় অভিভূত না হয়ে পারলাম না।চড়ুই বলছিল একদিন আমি লালনকে নিয়ে বাজি ধরে ছিলাম সংগীত জগৎ এ এখন থেকে তোকে নিয়ে বাজি ধরলাম ফুলঝুরি।

ফুলঝুরি পাগলামি করছিলো তখন কমলিণী ফুলকে বলছিল-

“দেখো ফুলঝুরি,জীবনটা মনে করো একটা না দেখা দৃশ্যের মত।এখানে যেমন কষ্ট আর যন্ত্রণা আছে তেমনি ভালোবাসাও আছে।”

সবাই ফাঁটিয়ে অভিনয় করছে।ভেবেছিলাম দেখবো না তবে যে হার্ট টাচিং এপিসোড আজকে হল আগ্রহ বেড়ে গেল।কালকে আবার শুরু হচ্ছে গানের ফাংশন।একই মঞ্চে গান গায়বে লালনও।তবে কি এভাবেই মনে পড়ে যাবে ফুলঝুরিকে?

তিতির লালনকে হয়তো সুস্থ করার জন্যই এই নাটক গুলো করলো।একসাথে থাকবেও না লালনের সাথে।শুধু বললো আমি যে ভয়ংকর খেলায় মেতেছি তাতে যেন সফল হতে পারি।

গল্পের ইন্টারেস্টিং পার্ট শেষ হয়নি।আপকামিং টুইস্ট আসছে।অন্যদিকে আজকে ফুলের এনার্জেটিক অভিনয়ও দারুণ।

সবচেয়ে নজর কাড়লো ফুল-চড়ুই এর বন্ডিং।ঐ সিনটা আজকে খুব ইমোশনাল ছিল।”

একদল মানুষ যেখানে চড়ুই আর ফুলের বন্ডিং দেখেই ধুলোকনা দেখার উৎসাহ ফিরে পাচ্ছেন নতুন করে
সেখানে আরেকজন নেটিজেন আবার পুরো বিষয়টি নিয়ে ট্রোল করে লিখেছেন, “ Ebar era toiri korbe All India Sotin Association.
ফুলঝুরি আর চড়ুই মিলে তাঁরা তৈরি করবে All India sotin Association. সতীনে সতীনে এত মিল এর আগে কোন সিরিয়ালে দেখানো হয়নি”

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।