বাংলা সিরিয়াল

“এত দিন শুধু নিজের হাতের লেখা খারাপ ভাবতাম, এটা দেখার পর মনে হচ্ছে না আমার মত আরও অনেকেই আছে” – মিঠাই এর উচ্ছেবাবুর বাংলা হাতের লেখা দেখে খিল্লি করছেন নেটিজেনরা

বর্তমানে বাংলা ধারাবাহিক জগতের অন্যতম জনপ্রিয় একটি ধারাবাহিক হলো” মিঠাই”। এই ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্র মিঠাই এবং সিদ্ধার্থ। এদের দুজনের হাসি, মজা, ভালোবাসা, খুনসুটি বেশ পছন্দ করেছেন দর্শক। ৫৬ বার বঙ্গ সেরা হয়ে রেকর্ড ব্রেকিং পারফরম্যান্স করেছে এই ধারাবাহিক। প্রত্যেকদিন রাত আটটা হলেই সিরিয়াল প্রেমী দর্শক মিঠাই দেখবেন না এটা হত না। ধারাবাহিকের গল্প থেকে কলাকুশলী সকলকেই আপন করে নিয়েছিলেন দর্শক মন্ডলী।

ধারাবাহিকের সাথে সাথে ধারাবাহিকের যেসব কলা কুশলীরা চূড়ান্ত জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন তাঁদের মধ্যে দুজনের নাম অগ্রগণ্য। এই ধারাবাহিকের দুই মুখ্য চরিত্র। আমাদের সকলের প্রিয় মিঠাই রানী ওরফে সৌমিতৃষা কুন্ডু এবং উচ্ছেবাবু ওরফে আদৃত রায়। মিঠাই রানী জনপ্রিয়তার কথা আমরা সকলেই জানি। আজকে আমরা সে বিষয়ে কথা বলব না। আমরা কথা বলবো উচ্ছে বাবুকে নিয়ে। বড় পর্দায় অভিনয় করার চেষ্টা করলেও কেমন জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পারেননি। তবে ছোট পর্দায় এসেছে চূড়ান্ত সাফল্য। প্রথম ধারাবাহিকেই মহিলা অনুরাগীদের কাছে বাজিমাত দিয়েছেন আদৃত। তাঁকে নিয়ে নানান রকম নানান ফ্যান পেজ তৈরি হয়েছে সেখান থেকেই বিভিন্ন রকম আলোচনা হয় তাঁকে ঘিরে।

আসলে বর্তমানে ধারাবাহীকে দেখানো হচ্ছে যে মোদক পরিবারে নতুন সদস্য আসতে চলেছে। অর্থাৎ মিঠাই এবং সিদ্ধার্থের জীবনে আসছে গোপাল। এই খুশিতে মেতে রয়েছে সম্পূর্ণ মোদক পরিবার। আর তাদের সাথে হবু বাবা সিদ্ধার্থও। এই আনন্দে খুশিতে মাতোয়ারা হয়ে মিঠাই এর চূড়ান্ত যত্ন করছে সে। মিঠাই কি খাবে, কখন উঠবে, কি পড়বে, কোথায় থাকবে সমস্ত কিছুর চার্ট রেডি করছে। এরকমই একটি সিন দেখানো হলো যে সিদ্ধার্থ মিঠাই সারাদিনে কিভাবে চলবে তা একটা সাদা কাগজে লিখে রাখছে। আর সেই সাদা কাগজের ওপর যে হাতের লেখায় আদৃত লিখছে তা নিয়েই শুরু হল সোশ্যাল মিডিয়াতে চর্চা।

মোটকথা এখন আদৃত নয় তাঁর হাতে লেখাই চর্চার কেন্দ্রবিন্দু। শুধু চর্চা নয়, গোটা সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে চলছে, এই হাতে লেখার সমালোচনা। একজন সাদা কাগজের ওপরের সেই হাতের লেখার ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে ক্যাপশনে লিখেছেন, “এতদিন শুধু নিজের হাতের লেখা খারাপ ভাবতাম। এইটা দেখার পর মনে হচ্ছে না আমার মত আরও অনেকেই আছে”। তবে অনেকেই আবার সিদ্ধার্তাকে সাপোর্ট করে লিখেছেন যে ইংলিশ মিডিয়ামে পড়া ছাত্রছাত্রীদের বাংলা হাতে লেখা কি খুব সুন্দর দেখাতে হবে? ইংলিশ মিডিয়ামে পড়েছে তার মানে হাতে লেখা এরকমই হওয়ার কথা।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।