টলিউড

টেনিস কোর্টে ঘাম ঝরালেন ,খুনসুটি করলেন, আসল ‘কাপল গোল’ তো দেখালেন যশ- নুসরাত, মিঞাঁ-বিবির প্রেম দেখে ‘বনু’ মিমি বলে উঠলেন সাধু সাধু

দেখতে দেখতে বছরটা শেষ হতে গেল। চার পাশে যেন খুশির মরসুম। সবাই ঘুরে বেড়াচ্ছেন, খাওয়া দাওয়া করছেন ,আনন্দে মাতছেন। আর এর মাঝেই শহরের এক টেনিস কোর্টে উষ্ণতা ছড়ালেন নুসরাত জাহান(Nushrat Jahan) এবং যশ দাশগুপ্ত(Yash Dasgupta)। শীতের সঙ্গে যেন ভাসিয়ে দিলেন তারা। শুক্রবার মিঞাঁ বিবি সকাল সকাল পৌঁছে গিয়েছেন টেনিস (Tennis)কোর্টে ঘাম ঝরাতে। যদিও তার মাঝে করলেন খুনসুটি। আবার দুজনের সেই ছবি এবং ভিডিও ভাগ করে নিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে।

কপালগোল আসলে কী হয় সেটাই যেন দেখালেন দেখালেন ‘যশরত’। তবে সব থেকে অবাক করার ব্যাপার হল তাদের ছবির প্রথম মন্তব্য। সেটি এসেছে নুসরাতের বনু মিমির(Mimi Chakraborty) কাছ থেকে। ছবির নিচে মন্তব্য করেছেন সাধু সাধু।

বিয়ের পর থেকেই যশ এবং নুসরত একে অপরকে এক মিনিটের জন্য চোখ ছাড়া করে না। একসঙ্গে শরীর চর্চা করছেন একসঙ্গে জিমে যাচ্ছেন আবার একসঙ্গে বাড়িতে শারীরিক কসরত করছেন। এবার দুজনেই ভোরের শিশির গায়ে মেখে টেনিস কোর্টে আনন্দ উপভোগ করছেন। এই শীতেও নুসরাত ঘাম ছুটিয়ে দিলেন হালকা নিচে স্পোর্টস ব্রা এবং শর্টস পরে। জড়ানো রয়েছে জ্যাকেট। তবে তার চেন খোলা। শীতের হাওয়ায় যা মাঝেমধ্যেই সরে গিয়ে দেখা দিচ্ছে নুসরাতের সুঠাম শরীর।

অন্যদিকে যশ পড়েছিলেন কালো টিশার্ট, সাদা শর্ট এবং কালো টুপি। ছাড়া মাঠ দৌড়োদৌড়ি করে আনন্দের ঠেলায় মেতেছেন তারা। কখনো ব্যাট দিয়ে বল লোফালুফি করছেন আবার কখনো খেলার ফাঁকে হেলথ ড্রিংকসে গলা ভিজিয়ে নিচ্ছেন। তাদের ভিডিওর কমেন্টে ভেসে গিয়েছে ভালোবাসার বার্তা। যশ নিজে জানিয়েছেন টিম এবং এনজের সঙ্গে ব্যস্ত একটা দিন। যদিও আমি কার্ডিওর জন্য গেছিলাম, টেনিস খেলতে নয়।

যশ এবং নুসরাত যাদের সম্পর্কের খবর সামনে আসার পর থেকেই কম সমালোচনার মুখে পড়তে হয়নি। নিখিলের সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে যখন নুসরাত যশের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছেন তার সঙ্গে থাকতে শুরু করেছেন তখন থেকেই একা যাবতীয় সমালোচনা সামনে যাচ্ছেন। পাশে আবশ্যই ছিলেন যশ। এমনকি নুসরাতের সন্তান জন্ম নেবার পর তার ছেলের বাবা কে হবে সেই নিয়েও কম কথা শুনতে হয়নি তাকে। সমস্ত সমালোচনা একা হাতে ভালোভাবে সামলে নিয়েছিলেন অভিনেত্রী।বরং সমালোচক এবং সমাজকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে যশ এবং নুসরত একে অপরকে প্রকাশ্যে বলে গিয়েছেন ভালোবাসি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Yash Daasguptaa (@yashdasgupta)

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।