Stories

“টেলিভিশন জগতের একজন অত্যন্ত পরিচিত লেখক বাবা, যার জন্য এত সহজে সুযোগ পেয়েছেন ইন্ডাস্ট্রিতে,” ইন্ডাস্ট্রিতে আসার আগে বহু সময় সমালোচনার শিকার হয়েছিলেন ‘জগদ্ধাত্রী’ ধারাবাহিকের উৎসব

ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্রগুলির পাশাপাশি ধারাবাহিকের পার্শ্ব চরিত্র গুলিও সমান গুরুত্বপূর্ণ। পার্শ্ব চরিত্র গুলো না থাকলে ধারাবাহিকের কেন্দ্রীয় চরিত্র গুলি এত প্রাধান্য পেত না। সম্প্রতি কয়েকদিন আগে জি বাংলার পর্দায় শুরু হয়েছে নতুন ধারাবাহিক জগদ্ধাত্রী। আর কয়েক সপ্তাহ যেতে না যেতে দারুন ফলাফল করেছে এই ধারাবাহিক টিআরপি তালিকায়। ধারাবাহিকের দুই মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেতা সৌম্যদীপ মুখোপাধ্যায় এবং অভিনেত্রী অঙ্কিতা মল্লিক। সৌম্যদীপ অভিনয় করছে স্বংয়ম্ভুর চরিত্রে এবং অঙ্কিতা অভিনয় করছে জগদ্ধাত্রীর চরিত্রে। দুজনেই টেলিভিশনের পর্দার একেবারে নতুন মুখ। অঙ্কিতা মডেলিং দিয়ে নিজের কেরিয়ার শুরু করেছে। আর অন্যদিকে সৌম্যদীপ এর আগে একটি ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন।

এ দুজনকে বাদ দিয়ে ধারাবাহিকের আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেতা অর্ক চক্রবর্তী। তার চরিত্রের নাম উৎসব। ধারাবাহিকে তার পরিচয় হলো সে জগদ্ধাত্রী বোনের স্বামী এবং স্বংয়ম্ভু সৎ ভাই। ধারাবাহিকের গল্প অনুযায়ী উৎসব কোন একটি অসৎ কাজের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে। জগদ্ধাত্রীর বোনের সঙ্গে বিয়ে হওয়ার আগে জগদ্ধাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল উৎসবের।

এটাই অর্ক চক্রবর্তী প্রথম ধারাবাহিক এবং প্রথম ধারাবাহিকে নিজের চরিত্রকে সুন্দরভাবে পর্দায় ফুটিয়ে তুলেছেন অভিনেতা। ভিলেন চরিত্রে অভিনয় করা সত্যি চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার। যদি দর্শকের সেই চরিত্রের প্রতি ঘেন্নাই না জন্মায় তাহলে ভিলেন চরিত্র পুরোটাই বৃথা। অভিনেতা জানিয়েছেন অভিনেতার বাবা ইন্ডাস্ট্রির একজন অত্যন্ত পরিচিত লেখক। তাই অনেক সময় অর্ক কে শুনতে হয়েছে বাবার দৌলতেই অর্ক ইন্ডাস্ট্রিতে এত সহজে জায়গা পেয়েছে। যদিও এই বিষয়টা পুরোপুরি ভুল বলেই জানিয়েছেন অভিনেতা।

অর্ক জানিয়েছে ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ পাওয়ার জন্য তিনিও যথেষ্ট স্ট্রাগল করেছেন বাকিদের মতো। শুধুমাত্র অভিনয়ের টানে চাকরি ছেড়ে এখানে এসেছেন তিনি। অভিনয় করতে বরাবরই ভালবাসেন তাই নিজের ইচ্ছের টানে এসেছেন তিনি। আর জগদ্ধাত্রীকে উৎসব চরিত্রে তাকে অভিনয় করার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য পরিচালক স্নেহাশিস চক্রবর্তীকে অভিনেতা অসংখ্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।