বাংলা সিরিয়াল

মিঠাইকে হারানোর মতো সিরিয়াল এসে গেলো! ‘নিম ফুলের মধু’ নিয়ে আসছেন ‘জবা’ পল্লবী! বড্ড চিন্তায় দর্শকরা, প্রোমো দেখেই বোঝা যাচ্ছে TRP তে ১ নম্বরে আসবেই এই ধারাবাহিক

খবর অনেকদিন ধরেই টলিপাড়ায় ছিল। সপ্তমীর শুভদিনে নতুন ধারাবাহিকের ঘোষণা করল জি বাংলা চ্যানেল। প্রোজেক্টের নাম ‘নিম ফুলের মধু’। মুখ্য চরিত্রে রয়েছেন পল্লবী শর্মা আর যমুনা ঢাকি খ্যাত রুবেল দাস। ধারাবাহিকের প্রোমোও শেয়ার করা হল সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে এসব দেখে বেশ চিন্তায় পড়েছেন দর্শকরা। কারণ সবাই মনে মনে ভয় পাচ্ছে মিঠাই যেন আবার বন্ধ না হয়ে যায়!

প্রোমো-তে দেখা যাচ্ছে ধুমধাম করে চলছে রুবেল আর পল্লবীর বিয়ের প্রস্তুতি। পর্ণা (পল্লবী)র পরিবার খুব খোলামনের, সেদিক থেকে ছেলের বাড়ি অনেক বেশি রক্ষণশীল, যৌথ পরিবার। সবচেয়ে বড় কথা ছেলে মায়ের আঁচলে বাঁধা। আর তাই তো ‘তোমার জন্য কাজের লোক আনতে যাচ্ছি’ বলে মায়ের কোল থেকে উঠে বিয়ে করতে যায় সে।

ফুলশয্যার রাতে বউ-এর থেকে উপহার নিয়ে খুশি হলেও, বউকে দেয় না কোনও ফিরতি উপহার। পরদিন ভোরে কড়া নেড়ে ঘুম থেকে ডেকে ওঠায় শাশুড়ি। ছেলেকে ধরায় বেড টি। আর নতুন বউকে কড়া গলায় বলে, ‘ফুলশয্যা শেষ, মাথায় ঘোমটা দিয়ে নীচে চলো’। তবে পর্নার জূীবনের খোলা হওয়া তাঁর দিদি শাশুড়ি। যে বোঝায়, ‘বিয়ে প্রথম বছর হল নীম ফুলের মধু। তেতোটুকু পার করলে তবেই না মিঠের হদিশ পাবি।’

প্রোমোতেই বোঝা যাচ্ছে আদ্যোপান্ত পারিবারিক ড্রামা হতে চলেছে ‘নিম ফুলের মধু’। ধারাবাহিকে রয়েছেন লিলি চক্রবর্তী, বিশ্বনাথ দত্ত সহ অনেক আরও অভিনেতারা। দেখুন ট্রেলার–

তবে মাথায় হাত পড়েছে মিঠাই ভক্তদের। দিনদিন trp তে খারাপ ফল করছে সৌমিতৃষা কুণ্ডু আর আদৃত রায়ের এই ধারাবাহিক। তাই তাঁদের আশঙ্কা কোপ হয়তো এখানেই পড়বে। হয়তো রাত ৮টার স্লটই দেওয়া হবে। তাই এখন থেকে সকলেই ভয় দেখাতে শুরু করেছে ‘জি কাকু’কে। তবে মিঠাই বন্ধ না হলেও, প্রাইম টাইম থেকে সরিয়ে দেওয়া হতেই পারে। কারণ উলটোদিকে থাকা স্টারজলসার ‘ধুলোকণা’কে আটকাতে দরকার এখন বড় খেলোয়াড়।

বন্ধ হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে রাহুল আর রুকমার ‘লালকুঠির’ও। কারণ একে তো শুরু থেকেই টিআরপি নেই, আর অন্য দিকে, বিক্রম প্রায় ধরেই ফেলেছে অনামিকাই আসল জিনি। আর সেটা দিয়েই হয়তো শেষ হবে এটি। দেখা যাক এবার কোন দিকে এগোবে চ্যানেল।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।