বাংলা সিরিয়াল

শাশুড়ি বৌমাকে অত‍্যাচার করছে, সেটাই দেখছে দর্শকরা, ভাল কিছু দেখার অভ্যাস নেই! মুখ খুললেন চৈতি ঘোষাল

সদ্যই শেষ হয়েছে ‘বৌমা একঘর’ (Bouma Akghor) সিরিয়াল। স্টার জলসায় এই সিরিয়ালটি মাত্র তিন মাস চলেছিল। এই সিরিয়ালটি বন্ধ হয়ে যাওয়ার জন্য নেট মিডিয়া এবং সংবাদ মাধ্যমে প্রচুর লেখালেখি হয়েছিল। সিরিয়ালে যে অভিনেতা অভিনেত্রীরা ছিলেন তারা অনেকেই মুখ খুলেছেন তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন চৈতালি ঘোষাল। এই অভিনেত্রীর মতে এই সিরিয়ালে কূটকাচালি দেখানো হয়নি বলে দর্শকরা এটার থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন।

স্টার জলসার সিরিয়াল খুকুমণি হোম ডেলিভারি শেষ হয়ে যাওয়ার পর শুরু হয়েছিল বৌমা একঘর সিরিয়ালটি। খুকুমণির কথায় কথায় মারপিট আর কূটকাচালি, নেতিবাচকতা দেখে বিরক্তি প্রকাশ করেছিল দর্শকরা। তাই একসময় হঠাৎ করেই টিআরপির তালিকায় প্রথম সারি থেকে শেষে নেমে আসে। অপরদিকে বৌমা একঘর কোনো নেতিবাচকতা না দেখিয়েও একবারের জন‍্যও জায়গা করতে পারেনি টিআরপি তালিকায় সেরা দশে।

একই পরিবারের দুই জা ও তাঁদের ছেলের বৌদের মধ‍্যে কোন্দল, রেষারেষির গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছিল বৌমা একঘর। কিন্তু এই ঝগড়া রেষারেষি সবটাই ছিল কৌতুকের মোড়কে। বাস্তবিকভাবে কিন্তু কোনো অশান্তি ছিল না। কিন্তু এই সিরিয়ালটি দর্শকদের মনে জায়গা করতে পারেনি। চৈতি হতাশ হয়ে পড়েছেন। নিজেদের প্রমাণ করার সুযোগই পেলেন না।

চৈতীর মতে দর্শকদের ভালো কিছু দেখার অভ্যেস নেই। শাশুড়ি বৌকে অত‍্যাচার করছে আর বৌ সেটা মুখ বুজে সহ‍্য করছে। দর্শক সেটাই দেখছে। দর্শকদের উচিত ভালো কিছু দেখার অভ্যাস করা।

আলোচনার মধ্যে উঠে আসে টেলিভিশনের অত‍্যন্ত জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘এক আকাশের নীচে’র কথা। সে প্রসঙ্গে চৈতি বলেন যে ওই সিরিয়ালে সমস্ত তাবড় তাবড় অভিনেতা অভিনেত্রীরা একজোট হয়ে কাজ করেছিলেন। ওই লেখক, চিত্রনাট‍্য সব হয়তো আর কখনো হবে না। তবে বৌমা একঘর সিরিয়ালটি যদি আরও একটু সুযোগ পেত তাহলে চৈতীর মন ভালো লাগতো।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।