বাংলা সিরিয়াল

অবিবাহিতা হয়েও মা দুর্গাকে পান পাতা সিঁদুর দিয়ে বরণ অপরাজিতা অপু’র! অপরাজিতা অপু খ্যাত অভিনেত্রী সুস্মিতার দেবী বরণ নিয়ে উঠছে কটাক্ষ, গেল গেল রব সোশ্যাল মিডিয়ায়

এ বছরের মত দুর্গা পূজার ইতি। আবার অপেক্ষা শুরু এক বছরের। করোনা জেনে গত দু বছরে আনন্দ উৎসবে ভাটা পড়লেও এ বছরটায় বাঙালি বেশ জাঁকজমকভাবে শারদ উৎসবে মেতে উঠেছে। মায়ের বিদায়ের পর মন খারাপ থাকলেও আবার কর্মব্যস্ততার মধ্যে ডুব দিয়েছে আম বাঙালি। দশমীর রেশ কাটতে না কাটতেই শুরু হয়ে গিয়েছে নিত্যদিনের দৌড়ঝাঁপ। আমজনতা থেকে শুরু করে সেলিব্রেটিরাও একে একে ফিরতে শুরু করেছেন কাজের দুনিয়ায়। যারা বিদেশ ভ্রমণে বেরিয়েছিলেন তাদেরও এবার ঘরে ফেরার পালা। আর বিলেত ভ্রমণ সেরে তিলোত্তমায় ফিরতেই বিপত্তি বাধল পর্দার অপুর ওরফে সুস্মিতার।

এই বছর চুটিয়ে হই হুল্লোড় করেছেন অপরাজিতা অপুর অপু অর্থাৎ অভিনেত্রী সুস্মিতা দে। পুজোতে দারুণ ঘোরাঘুরি করলেও এসে যেন একটুখানি তালগোল পাকিয়ে গিয়েছে। এখন প্রশ্ন হল গন্ডগোলটা ঠিক কোথায় বেঁধেছে ?

জানা গিয়েছে, অপরাজিতা অপু ধারাবাহিকের অভিনেত্রী সুস্মিতা দেবীকে পান পাতা আর সিঁদুর দিয়ে বরণ করেছেন। এদিকে, নায়িকা নিজে অবিবাহিতা হয়ে বিবাহিতদের রীতি পালন করায় রীতিমতো সমস্যার মুখোমুখি হয়েছেন। সাধারণত হিন্দু শাস্ত্র মতে, মা দুর্গার বরণ করেন বিবাহিতা মহিলারাই‌। এর পরে হয় জমিয়ে সিঁদুর খেলা সেখানে কিছু অবিবাহিতা মেয়ে অংশগ্রহণ করেন যাদের গালে কপালে সিঁদুর লাগানো হয়।

এখন অভিনেত্রী সুস্মিতার ভিডিও প্রকাশ পেতেই রীতিমতো হইচই পড়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তাহলে কি তিনি লুকিয়ে প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে করে নিয়েছেন এমন প্রশ্নও আবার অনেকে করেছেন। পুজো উদ্যোক্তারা কিভাবে এই কর্মকান্ডে সায় দিলেন সেই বিষয়ে নানান মন্তব্য উঠে এসেছে। নেটিজেনদের একাংশের কথায়, কেবলমাত্র সুস্মিতা অভিনয় করে এবং তথাকথিত সেলিব্রিটি বলেই তার জন্য হিন্দু ধর্মের নিয়ম বদলে যাবে? অভিনেত্রী নিজে কীকরে এমন কাজ করলেন সেই নিয়েও বিস্তর কাটাছেঁড়া চলছে। তবে, হাজার প্রশ্ন উঠলেও উত্তর অবশ্য একমাত্র অপরাজিতা অপুরই জানা আছে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Susmita Dey (@susmitadey.official)

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।