বাংলা সিরিয়াল

সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলের সামনে এসে আসল সত্যিই জানালেন অনিন্দিতা, লালন কে তিনি খুন করেনি সকলের কাছে হাতজোড় করে কাকুতি মিনতি করলেন তিনি

বর্তমানে ধূলোকণা ধারাবাহিকে লালনের শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠান চলছে। হানিমুনে গিয়ে সমুদ্রের জলে তলিয়ে যায় লালন। আর লালনের মৃত্যুতেই গভীরভাবে শোকাহত ফুলঝুড়ি এবং তার পরিবার। লালনের এই মৃত্যু পেছনে সকলেই সন্দেহ করছে চড়ুইয়ের মা চান্দ্রেয়ী কে। এবারে এই বিষয়ে সরাসরি মুখ খুললেন অভিনেত্রী সোশ্যাল মিডিয়াতে। ধুলোকণা ধারাবাহিকে চান্দ্রেয়ীর ভূমিকায় অভিনয় করছেন অভিনেত্রী অনিন্দিতা। এবারে অভিনেত্রী নিজের সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্ট এর মাধ্যমে সকল কে সত্যিটা জানালেন।

বর্তমানে ধুলোকোনা ধারাবাহিকের ভক্তরা প্রত্যেকের ক্ষেপে রয়েছে চড়ুই এবং তার মায়ের উপরে। কারণ তারা প্রত্যেকেই জানে লালনের খুনের পেছনে এরা দুজনই দায়ী। যদিও ধারাবাহিকে এখনো এই বিষয়ে কোনো পর্ব দেখানো হয়নি। তাও দর্শকরা বেজায় ক্ষেপে রয়েছে অনিন্দিতার উপরে। প্রত্যেকেই বলছেন চড়ুই এবং তার মা মিলে খুন করেছে লালনকে। আর সোশ্যাল মিডিয়া এত ধরনের নেতিবাচক কমেন্ট দেখে নিজেই এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় মুখ খুললেন অভিনেত্রী অনিন্দিতা। কাচুমাচু মুখের একটি ছবি পোস্ট করে অভিনেত্রী লিখেছেন “আমি খুন করিনি। বিশ্বাস করুন আপনারা আমি খুন করিনি লালন কে।” আর সোশ্যাল মিডিয়া অভিনেত্রীর এই পোস্ট থেকে নেটিজেনরত হেসে গড়াগড়ি প্রত্যেকে ই অভিনেত্রী ছবিতে কমেন্ট করেছেন কেউ লিখেছেন যতই কাছাকাছি মুখ করে বলুন না কেন কেউ আর আপনাকে বিশ্বাস করছে না আবার অনেকের দাবি এত মিষ্টি অভিনেত্রী এরকম করে বললে তাকে কি আর বিশ্বাস না করে থাকা যায়। আসলে পুরো ব্যাপারটাই মজার ছলে করা হয়েছে।

শুরু থেকেই চান্দ্রেয়ী চড়ুইকে ভালো রাখার জন্য নানান রকম অসৎ কাজ করে গিয়েছে। ফুলঝুরি কে ঠকিয়ে চড়ুই এর জোর করে লালনের বিয়ে দিয়ে দেওয়া থেকে শুরু করে ফুলঝুরির নানা রকম ক্ষতি করা। সবকিছুই চড়ুই এবং তার মা মিলেই করেছে। বর্তমানে আবার চড়ুই কে বাঁচানোর জন্য উড়িষ্যায় পাঠিয়ে দিতে চাই সে। কিন্তু পরিবারের কেউই তাকে সমর্থন করে না। প্রত্যেকেই বলে তার বোনের এখন এই অবস্থায় এই বিপদের দিনে নিজের বোনের পাশে থাকবেনা চড়ুই? কিন্তু ফুলঝুরিও হাল ছেড়ে দেয়নি, নিজের যোগ্যতায় সে কিছু করে দেখাতে চায়, নিজের পায়ে দাঁড়াতে চায়।

তাই চান্দ্রেয়ী চড়ুই কে বাঁচানোর জন্য উড়িষ্যায় আনন্দীর কাছে রেখে আসে নিজের মেয়েকে। কিন্তু আনন্দী চড়ুই এর সমস্ত কুকীর্তির কথা জানে আর সে স্পষ্ট চড়ুইকে জানিয়ে দেয় যে সে চড়ুই এর সমস্ত কুকীর্তির কথাই জানে। চড়ুই যদি আনন্দী কথা মতো না চলে তাহলে সে সমস্ত সত্যি সবাইকে জানিয়ে দেবে। এদিকে নিজের মেয়েকে অজান্তে বিপদের দিকে ঠেলে দিয়েছে চান্দ্রেয়ী। এবার দেখার অপেক্ষায় কি হতে চলেছে ধারাবাহিকে আগামী দিনে। লালন কি ফিরে আসবে? নাকি অন্য কোন চমক আসতে চলেছে ধারাবাহিকে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।