বাংলা সিরিয়াল

মল্লারের দুর্বলতা দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে রঞ্চার প্রতি! রঞ্জাকে বেনারসে জলে ফেলে বিন্দি খুন করে, আর তাতেই কেঁদে ভাসাচ্ছে মল্লার

জি বাংলার অন্যান্য জনপ্রিয় ধারাবাহিক গুলির মধ্যে একটি হল পিলু। এই ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্র পিলু এবং আহির। সেই পিলু এবং আহিরের রসায়ন বেশ পছন্দ করেন দর্শক। কিন্তু তার পাশাপাশি বেশ গুরুত্ব পায় মল্লার ও রঞ্জা। ইতিমধ্যেই ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে রঞ্ঝা ও মল্লার একে অপরের প্রতি দুর্বল হয়ে পরছে। মূলত মোল্লারই আকৃষ্ট হচ্ছে রঞ্জার প্রতি। আর তারই মধ্যে এই দুটি মানুষের মধ্যে চলে আসে বিন্দি।

এরপরেই বিন্দি এসে নিজের অধিকারের দাবি করে। সে বলে বিন্দি নাকি মল্লারের স্ত্রী। আর এই কথার স্বপক্ষে সে একটি ছবি এবং একটি বালা দেখায় যা মোল্লারের দিদার। আর তারপরেই বিন্দি নিজের কথার জালে ভুল বোঝায় মোল্লারের দাদুকেও। মোল্লারের দাদু অবিশ্বাস করতে শুরু করে মোল্লারকে। একমাত্র পিলু, আহির আর রঞ্জাই বিশ্বাস করত যে বিন্দি মিথ্যে বলছে আর মল্লার সত্যি। তাই পিলু আহির রঞ্জা এবং মল্লার চারজনের মিলে বেনারসে পাড়ি দেয়। বিন্দির বিরুদ্ধে যা যা প্রমাণ আছে তা সব জোগাড় করতে।

কিন্তু বেনারসে গিয়ে বিন্দির আরেকটি বিয়ের ঘটনাও জানতে পারে তারা। অন্যদিকে বিন্দি বসুমল্লিক পরিবারের নজর এড়িয়ে দুই কাপলের পিছন পিছন পৌঁছে যায় বেনারসে গিয়ে সম্পূর্ণ বিষয়টি ম্যানেজ করে দেয় আর সেই লোকটি এদের কাছে মিথ্যে কথা বলে। সম্প্রতি দেখা যাচ্ছে যে বেনারসে ছদ্মবেশী রূপ ধরে ছদ্মবেশে রয়েছে বিন্দি। আর ঘাটের একদম শুরুতে রয়েছে রঞ্জা আর আহির। পিছনে আসছে পিলু তারা জলে প্রদীপ ভাসাবে বলে ঠিক করেছে। এরপরই দেখানো হয় রঞ্জাকে ধাক্কা মেরে জলে ফেলে দেয় বিন্দি। মল্লার জলে ঝাঁপ দিয়ে রঞ্জাকে খুঁজলেও কোথায় খুঁজে পাওয়া যায় না। আহির নৌকো নামানোর কথা বলেন। কিন্তু তার মধ্যেই রঞ্জাকে হারিয়ে কেঁদে ভাসাচ্ছেন মল্লার।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।