বাংলা সিরিয়াল

‘তিতিরের সিঁথিতে লিপস্টিক দানের বদলে বরং এভারেস্টের লাল লঙ্কার গুঁড়ো দিয়ে সিঁদুর দান করলেও তাও মেনে নিতে পারতাম!’-সিঁদুর দান এখন অতীত লিপস্টিক দানের নতুন ট্রেন্ড দেখে সরস মন্তব্য করলেন এক নেটিজেন!

ধারাবাহিক এক সময় এক একটা নতুন নতুন ট্র্যাক আসে যেমন দীর্ঘদিন ধরে ধারাবাহীকে দেখানো হয় উড়ন্ত সিঁদুরের ট্রাক নায়কের হাত থেকে উড়ে উড়ে সিঁদুর ঠিক খুঁজে নেয় নায়িকাকে এবং তার মাথায় গিয়ে সিঁদুরটা পড়ে ব্যাস বিয়ে হয়ে যায় নায়ক নায়িকার। এই উড়ন্ত সিঁদুরের ট্রাকের পর মাঝখানে কিছুদিন দেখা যাচ্ছিল নিজে নিজে বিয়ে করার ট্র্যাক। অর্থাৎ নায়ক নায়িকার সিঁথিতে সিঁদুর না দিলেও নায়িকা নিজে নিজেই সিঁথিতে সিঁদুর দিয়ে বউ হয়ে চলে আসছিল।

সম্প্রতি আবার এসেছে লিপস্টিক দান। অর্থাৎ সিঁদুরের পরিবর্তে লিপস্টিক দিয়ে বিয়ে হয়ে যাচ্ছে। যেমনটা হয়েছে স্টার জলসার ধুলোকণায়। এই ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে স্মৃতিশক্তি হারিয়ে যাওয়ার পর লালন বিয়ের মন্ডপে পৌঁছে সিঁদুর দেখে তার অস্বস্তি হচ্ছে তার শরীরে কষ্ট হচ্ছে সেই কারণে তিতির তাকে বলে তুমি বরং লিপস্টিক টাকেই সিঁদুরের মতো আমার সিঁথিতে পরিয়ে দাও। যা দেখে সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে তীব্র ট্রোলিং। – উড়ন্ত সিঁদুর অবধি মানুষ তাও হজম করে নিয়েছিল কিন্তু লিপস্টিক পরিয়ে দেওয়ার পরে যেভাবে লালনের দিকে দুঃখী দুঃখী মুখ করে ফুলঝুরি বিদায় নিল যেন মনে হলো সত্যি তাদের বিয়ে হয়ে গেছে।

একজন নেটিজেন লিখেছেন,
“অবশেষে এতদিনের অপেক্ষার অবসান হলো…….. ভেবেছিলাম হয়তো সিদুর পড়ানোর সময় লালনের সব স্মৃতি ফিরে আসবে কিন্তু এমটা কিছুই হলো না! সেই তিতিরের সাথে বিয়ে হয়ে গেল!….. কিন্তু আমি মনে করি এটা কোনো বিয়েই নয় কারন আর যায় হোক লিপস্টিক দিয়ে কোনোদিন বিয়ে হতে পারে না!আশা করছি লালনের স্মৃতি খুব তাড়াতাড়ি ফিরে আসবে…. এবং তখন আবার খুব জমজমাট হবে ধুলোকণা।……. কিন্তু ফুলঝুড়ির জন্য সবথেকে বেশি খারাপ লাগে…..”

আরেকজন আবার মজা করে লিখেছেন,
“সব মেনে নিলাম,তাই বলে সিঁথিতে লিপস্টিক পরিয়ে বিয়ে
তিতির রান্নাঘর থেকে একমুঠো Everest-এর লাল কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়োও তো আনতে পারতো..ওই লাল লঙ্কার গুঁড়ো দিয়েই নাহয় তিতিরের সিঁথি ঝাঁঝিয়ে i mean রাঙিয়ে দিতো গোগল”

আরেকজনের বক্তব্য,“লীনা পিসিকে রগে রগে ঠিকই চিনেছি..
তিতিরের সিঁথিতে লাল লিপস্টিক পরিয়ে so called বিয়ে করল লালন…
(বিয়ে বৈধ নাকি অবৈধ সেই বিষয়ে যেতেই চাইনা…কিন্তু এভাবে এসব দেখাবেন সেটা মানা যায় না)”

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।