বাংলা সিরিয়াল

‘দিদি আপনি ভূ;ত দেখেছেন?’ পরিচারিকার প্রশ্নে অবাক রচনা ব্যানার্জি

সাম্প্রতিককালে জি বাংলা দিদি নাম্বার ওয়ান রিয়েলিটি শো বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। এই শরীর সঞ্চারিকা হলেন রচনা ব্যানার্জি। মাঝেমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়াতে এই রিয়েলিটি শোর ভিডিও ভাইরাল হয়। এবারো গৃহিণীদের সঙ্গে হাউস হেল্পারদের বিশেষ পর্বের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে মিডিয়াতে।

দিদির নম্বর ১’-এর মঞ্চে চলছে এবার বিশেষ পর্ব। বিশেষ পর্বে দিদি নাম্বার ওয়ানের মঞ্চে থাকছে গৃহিণীদের সঙ্গে হাউস হেল্পাররা। এদিন মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন ঋতু অধিকারী‌ নামে এক মহিলা। এ দিন দিদি নম্বর ১-এর মঞ্চে এসে নিজের জীবনের অদ্ভুত অভিজ্ঞতার কথা ফাঁস করেন ঋতু। পেশায় ঋতু দেবী একজন পরিচারিকা।

দিদি নাম্বার ওয়ান এর মঞ্চে ঋতু এদিন রচনা ব্যানার্জিকে প্রশ্ন করেন যে দিদি আপনি ভূত দেখেছেন?’ রচনা ব্যানার্জি বলেন যে না তিনি কখনো ভুত দেখেননি। তখন ঋতু বলেন যে আমরা দেখেছি। সকালবেলা বেল বাজাতে , দরজা খুললে দেখব বাড়ির গৃহকর্তী মুখে মেকআপ করে, হাতে মেহেন্দি পরে দরজা খুলছে। বলবে, এইটা করে দাওনা গো! ওইটা করে দাওনা! একটু চা বসিয়ে দাওনা! আমি চা খাবো।’ পরিচারিকার কথায়, তাঁর মালকিন বাস্তবে কোনো হিরোইন নয়, কিন্তু বাড়িতে সেজেগুজে থাকে সব সময়।

এর পরিপেক্ষিতে ঋতুকে রচনা ব্যানার্জি বলেন যে ঋতু এতই ভালো পরিচারিকা, যে বাড়ির মালকিনকে কিছুই করতে হয় না। ঋতু তখন বলেন যে যতই করি মাইনে বাড়ানোর সময় মালকিন ভুলে যান। তবে ‘যখন সাহায্য়ের প্রয়োজন হয় তাঁরা সাহায্য করেন। টাকাপয়সা বা অন্য ক্ষেত্রে। কিন্তু মাইনে বাড়ানোর ক্ষেত্রে ভুলে যান।’ এরপর রচনা ব্যানার্জি হেসে উঠেন।

পরিশেষে গৃহিণী প্রতিযোগী মিতালী বলেন গৃহিনী এবং পরিচালিকা হল একে অপরের পরিপূরক। এরপর রচনা ব্যানার্জি গৃহিণী এবং পরিচারিকার বোঝাপড়া নিয়ে কিছু মিষ্টি কমেন্ট ও করেন।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।