বাংলা সিরিয়াল

বাস্তবে ১৮ বছরের ফারাক গৌরী ও ঈশানের মধ্যে! ‘বাচ্চা সামলানো আমার অভ্যাস হয়ে গেছে, ভবিষ্যতে স্কুল খুলতে পারবো’! মুখ খুললেন গৌরী এলো ধারাবাহিকের নায়ক বিশ্বরূপ

জি বাংলার চলতি বছরের জনপ্রিয় ধারাবাহিক “গৌরী এলো”। এ ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্র গৌরী এবং ঈশান। তাদের রসায়ন পর্দায় বেশ জনপ্রিয়। এই ধারাবাহিকে গৌরীর চরিত্রে অভিনয় করছেন মোহনা মাইতি। আর ঈশানের চরিত্রে অভিনয় করছেন বিশ্বরূপ বন্দ্যোপাধ্যায়। বাস্তবে এদের দুজনের মধ্যে বয়সের ফারাক প্রায় ১৮ বছর। হ্যাঁ ঠিকই পড়লেন পর্দার গৌরী ও ঈশানের রসায়ন যতই ভালো হোক না কেন গৌরী কিন্তু বাস্তবে ঈশানের থেকে ১৮ বছরের ছোট। একে তো বয়সের এত ফারাক তার মধ্যে মোহনার এটা প্রথম কাজ সব মিলিয়ে বিশ্বরূপের কাঁধে ঠিক কতটা দায়িত্ব ছিল? এবার এবিষয়ে ঈশান অর্থাৎ অভিনেতা বিশ্বরূপ বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ খোলেন।

অভিনেতা বিশ্বরূপ বন্দ্যোপাধ্যায় এক বিশিষ্ট সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে একটু হেসে মন্তব্য করেন, “এটা এই প্রথম নয়। জানেন তো এটাই ঘটে চলেছে আমার সঙ্গে। আমার অভিনয় কেরিয়ারে যে অভিনেত্রীদেরই পাই না কেন বিপরীতে, তাঁরা বয়সে আমার থেকে অনেকটাই ছোট। হ্যাঁ এটা ঠিক, যে প্রথম প্রথম মোহনা অর্থাৎ পর্দার গৌরীকে একটু সহজ করে তুলতে বাড়তি পরিশ্রম করতে হত। ওর সঙ্গে বন্ধুত্ব করা, সম্পর্কটাকে সহজ করা প্রভৃতি। তবে মোহনা ভীষণ পরিশ্রমী মেয়ে, খুব দ্রুততার সঙ্গে সবটা শিখে নিয়েছে”।

পর্দায় সম্পর্কের সমীকরণ নিয়ে বিশ্বরূপ বলেন, “কেমিষ্ট্রি তো ঠিক হয় না, বিষয়টা হল সম্পর্কের সরলীকরণ। যাতে চরিত্রটা খুব সহজভাবে ফুঁটিয়ে তোলা যায়। সেই চেষ্টাই করেছি। তবে ওই যে বললাম। বাচ্চা সামলানো আমার অভ্যাস হয়ে গিয়েছে। ভবিষ্যতে স্কুলও খুলতে পারব।”

এবার সম্পর্কের সরলীকরণ থেকে সরে এসে অভিনেতাকে জিজ্ঞেস করা হলো অভিনয় জগতের অভিজ্ঞতা কেমন তাঁর কাছে? তাতে অভিনেতা বলেন, “কম বেশি সকলেই জানেন, যে আমি সম্পূর্ণ অন্য একটি সেক্টর থেকে অভিনয় জগতে এসেছি। কোনও পরিকল্পনাও ছিল না। প্রথম প্রথম কিছু বন্ধু সূত্রে যখন কাজ পাচ্ছি, তখন নিজের মনে হত, যে ঠিক করছি তো! বা আমি কী করছি! এরপর একে একে কাজ আসতে থাকে। আমিও করতে থাকি। একটা সময়ের পর তা আমার বেশ পছন্দের হয়ে যায়। আমি অভিনয়টাকে ভালবেসে ফেলি। আর এখন যেটুকু করছি সকলের সামনে, দর্শকরা ভালবাসা দিচ্ছেন। ব্যাস ভাল আছি।”

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।