বাংলা সিরিয়াল

স্পেশাল ক্রাইম ব্রাঞ্চ অফিসার জগদ্ধাত্রীকে বাড়িতে সকলে তাচ্ছিল্য করে, সৎ বোন জুতোর ফিতে বাঁধায়! কেমন ছিল জগদ্ধাত্রীর প্রথম এপিসোড?

সম্প্রতি ২৯ শেষ আগষ্ট থেকে স্টার জলসায় সন্ধ্যা সাতটা থেকে শুরু হলো ‘জগদ্ধাত্রী’ (Jagaddhatri) ওরফে জ‍্যাস। এক সাধারন মেয়ের আড়ালে অসাধারণ এর গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে এই ধারাবাহিকটি। আপাত ভীতু, ঘরোয়া এক মেয়ে জগদ্ধাত্রী, যে কিনা গোপনে স্পেশ‍্যাল ক্রাইম ব্র‍্যাঞ্চের অফিসার জ‍্যাস হয়ে কাজ করছেন।

প্রথম পর্বটি শুরু হয় যৌথ পরিবারের গল্প দিয়ে। ছোটবেলায় জগদ্ধাত্রীর মা মারা যায়। জগদ্ধাত্রী তার সৎ মা ও সৎ বোনের দু চক্ষের বিষ। তার সৎ বোন তাকে দিয়ে জুতোর ফিতে টা পর্যন্ত বাঁধিয়ে নেয়। জগদ্ধাত্রী সবই মুখ বুজে সহ্য করে যায়। তবে জগদ্ধাত্রী এর বাবা এবং ঠাকুমা তাকে খুবই ভালোবাসে। পরিবারের বেশিরভাগ মানুষই তাকে পছন্দ করে না। বাড়িতে পরিবারের অকথ্য অত্যাচার সে মুখ বুজে সহ্য করে আর অপরদিকে বাইরে গিয়ে স্পেশাল ক্রাইম অফিসার হিসেবে প্রতিবাদ করে মানুষের উপর মানুষের অন্যায়ের। স্বয়ম্ভূ খুব ভালো বন্ধু জগদ্ধাত্রীর।

কিন্তু জগদ্ধাত্রীকে সে খুব ভালোবাসে আর অনেকবার প্রপোজ করেছে যদিও জগদ্ধাত্রী না করে দিয়েছে। স্বয়ম্ভূ নিজেও জগদ্ধাত্রীর সঙ্গে স্পেশাল ক্রাইম ব্রাঞ্চ অফিসারের কাজ করে। আবার জগদ্ধাত্রী যাকে সবথেকে বেশি পছন্দ করে সেই মানুষটিও চরিত্রহীন, অহঙ্কারী ধরনের ব্যক্তিত্ব। জগদ্ধাত্রীর যে ‘জ‍্যাস’ হয়ে স্পেশাল ক্রাইম ব্র‍্যাঞ্চের অফিসার হিসেবে কাজ করছে সে কথা একমাত্র জগদ্ধাত্রীর ছোটবেলার বন্ধু জানে।

সিরিয়ালের প্রমো দেখে দর্শকরা খুবই উৎসাহিত হয়েছিলেন জগদ্ধাত্রী সিরিয়ালটিকে দেখার জন্য। কারণ তারা হয়তো ভেবেছিলেন যে এই সিরিয়ালটি অন্য ধরনের এক গল্প নিয়ে তাদের সামনে আসছে। তবে জগদ্ধাত্রী ধারাবাহিকের প্রথম পর্ব হতাশ করেছে দর্শকদের। এখন দর্শকরা বলছেন যে এই সিরিয়ালের থেকে উমা ধারাবাহিক অনেক ভালো ছিল।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।