বাংলা সিরিয়াল

‘আমি মানুষ চিনি সূর্য, দীপা চরিত্রহীনা নয়, ভগবান এসে বললেও এ কথা বিশ্বাস করব না!’বৌমা দীপার পাশে দাঁড়িয়ে সূর্যকে থাপ্পড় মারলেন লাবণ্য- দেখে লাবণ্য চরিত্রটিকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিচ্ছেন নেটিজেনরা!

জীবনে একজন খারাপ মানুষ বা একজন নেগেটিভ শেডের মানুষ যে কোনো সময় পরিবর্তন হয়ে যেতে পারে ঠিক একই রকম ভাবে ধারাবাহিকের ক্ষেত্রেও সেটা সম্ভব তা অনুরাগের ছোঁয়া ধারাবাহিকটি দেখলেই বোঝা যায়। এই ধারাবাহিকে প্রথম থেকে লাবণ্য চরিত্র টিকে এমন ভাবে তুলে ধরা হয়েছিল যে সে কালো রং অপছন্দ করে বলে তার ছেলে সূর্যের স্ত্রী দীপাকে ও সে অপছন্দ করে কিন্তু পরবর্তী কালে জানা গেলো তার কালো রং অপছন্দ করার কারণ হলো তার কালো রঙের প্রতি থাকা তার একটি ফোবিয়া এবং সেই ফোবিয়া দূর করতে সাহায্য করল তার বৌমা দীপাই। পরবর্তীতে লাবণ্য চরিত্রে আমূল পরিবর্তনে এসেছে।

সাম্প্রতিককালে এই ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে যে মিশকার ষড়যন্ত্রে সূর্য যখন দীপার চরিত্রে কলঙ্ক এনে সকলের সামনে বলে যে দীপার গর্ভে থাকা সন্তান তার নয় তখন দীপা সকলের সামনে সূর্যকে থাপ্পড় মারে, শুধু তাই নয় দেখা যায় লাবণ্য‌ও সবার সামনে তার ছেলেকে থাপ্পর মারছে। কারণ সে তার বৌমাকে বিশ্বাস করে।

লাবন্য বলে, “ যে নিজের স্ত্রী,সন্তানের দিকে আঙুল তুলতে পারে সে আর যাইহোক আমার ছেলে হতে পারেনা…আমি আজ মন থেকে তোমাকে ত্যাজ্য করলাম..আজ থেকে তুমি আমার ছেলে না…”কখনো বলে,“ আমি মানুষ চিনি সূর্য।দীপা চরিত্রহীনা নয়,স্বয়ং ভগবান এসে বললেও বিশ্বাস করব না।”- লাবণ্য সেনগুপ্তের এই বোল্ড চরিত্র দেখে দর্শকরা তার ফ্যান হয়ে গিয়েছেন। দীপার দুঃসময় তিনি দীপার পাশে দাঁড়িয়ে বলেছেন তাকে যখন এই পরিবার আবার সম্মান দেবে তখনই যেন সে এখানে ফিরে আসে এবং একই সাথে ছেলের অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছেন যা দেখে সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলে বলছেন লাবণ্য বেস্ট শাশুড়ি।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।