বাংলা সিরিয়াল

‘অসাধারণ প্রেজেন্টেশন করে মিঠাই! হালুমের মায়ের মাথায় গাজরা দেখলেই তা বোঝা যায়’-হালুমের মায়ের মাথায় বাসি গাজরা দিয়ে বিষয়টিকে বাস্তবোচিত করা হয়েছে যা দেখে প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটিজেনরা!

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক মিঠাই বিগত কতদিন ধরে হালুম ট্রাক এসেছে। এখানে দেখানো হচ্ছে যে হালুম বলে একটি ছেলে তার বাবা মার থেকে হারিয়ে গিয়ে মনোহারাতে আশ্রয় নেয়, মিঠাই এবং নন্দা মিলে তাকে ছেলের মত করে ভালবাসতে শুরু করে। এরপর যখন হালুমের বাবা-মায়ের খোঁজ পাওয়া যায় তখন হালুম কে ছেড়ে দিতে হয়। এই সময় প্রত্যেকেরই মন খারাপ হয়ে যায় মনোহারায় সিদ্ধার্থ থেকে শুরু করে মিঠাই সকলে খুব কষ্ট পায়।

মিঠাই আর নন্দার অভিনয় দেখে তো দর্শকরা মুগ্ধ হয়ে যান তারা দুজনেই হালুম কে ছেলের মতো ভালোবাসতো।হালুমকে বাবা মায়ের কাছে ছেড়ে দেওয়ার মুহূর্তে মিঠা‌ই নন্দার মুখ দেখলেই সকলের কষ্ট হচ্ছিলো। এই পর্বে প্রত্যেকেই খুব ভালো অভিনয় করেছেন বিশেষ করে মিঠাই চরিত্রের অভিনয়ের খুব প্রশংসা হয়েছে।

কিন্তু এই পর্বে আরো একটি বিষয় দেখে অবাকহয়ে যাচ্ছেন দর্শকরা!হালুমের মাকে দেখে এবং তার প্রেজেন্টেশন দেখে অবাক হচ্ছেন দর্শকরা। একজন নেটিজেন যেমন লিখেছেন, “আজ সবাই মিঠাইয়ের অনবদ্য অভিনয়ের কথা বলছে। অবশ্য বলাই উচিত। কিন্তু আজ আমি বলবো মিঠাইয়ের টিম এর খুঁটিনাটি খেয়াল রাখা নিয়ে। ছবিতে যিনি আছেন তিনি হালুমের মা। দক্ষিণ ভারতীয় সাজে মাথায় গাজরা থাকেই থাকে। কিন্তু এই মহিলার গাজরা দেখছেন? সম্পূর্ন নেতিয়ে পরা ফুলের গাজরা। হালুম মনোহরায় এসেছে প্রায় পাঁচ থেকে সাত দিন। আর ওর বাবা মাকে হয়তো এর আগে থেকেই বন্দী করে রাখা হয়েছে। আর বন্দী অবস্থায় টাটকা ফুলের গাজরা পরে থাকলে ব্যাপারটা বেনামান হতো।একটা সিরিয়ালে এই ভুল হলেও তা অতি নগণ্য হতো। কিন্তু এই ছোট বিষয়টাও তারা তুলে ধরেছেন। প্রতিটা বিষয়ের এক্সিকিউশন এতো নিখুত ভাবে করা যায় মিঠাই না দেখলে বুঝতাম না। সত্যি এই টিমের তুলনা নেই।”

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।