বাংলা সিরিয়াল

পর্দায় দিদা, ঠাম্মির রোলে নজর কেড়েছে তাঁর অভিনয়! বয়স ৭০ পেরোলেও আজও সমান জনপ্রিয় অনুসূয়া

বাংলা ভাষার জনপ্রিয় চলচ্চিত্র ও মঞ্চাভিনেত্রী অনুসূয়া মজুমদারকে আমরা সকলেই চিনি। এক সময় তিনি কুসুমদোলা’, ‘কুন্দ ফুলের মালা’, ‘অন্দরমহল’, ‘গাছকৌটো’— চার-চারটে বাংলা মেগা সিরিয়ালে একসঙ্গে কাজ করতেন। একসময় এই অভিনেত্রী মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানির উচ্চপদে চাকরি করতেন। চাকরি পাশাপাশি তিনি নাচ থিয়েটারও চালিয়ে যেতেন। তবে একসাথে চারটি সিরিয়ালে অভিনয়ের কাজ করা কিন্তু সহজ ব্যাপার নয়। তবে এক সময় অনুসূয়াদেবী জানিয়েছিলেন যে একটা চরিত্র থেকে আরেকটা চরিত্রে যেতে অসুবিধা হয় না আর যদি অসুবিধা হয় তাহলে এতদিন ধরে কী করলেন তিনি?

সিরিয়ালে কাজ করার পাশাপাশি তিনি সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন। প্রথম তিনি বৃত্ত’ নামে একটি ছবিতে প্রথম অভিনয় করেন যদিও সেটা মুক্তি পায়নি। নাট্যগোষ্ঠী ‘চেনা মুখ’-এ তাঁর অভিনয় দেখে পরিচালক মৃণাল সেন ‘মহাপৃথিবীতে অভিনয় করার জন্য তার কাছে প্রস্তাব পাঠান। তারপর আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। ‘তাহাদের কথা’, ‘কালরাত্রি’, ‘ভাল থেকো’, ‘চিত্রাঙ্গদা’ এছাড়াও আরও অনেক ছবিতে অভিনয় করে গেছেন অনুসূয়া। করেছেন অনেক সিরিয়ালের কাজ। অভিনয় ও চাকরি, পাশাপাশি তার অভিনয়ের প্রতি ভালবাসাটা একটু বেশি হয়ে গেছিল।

বর্তমান সময়ে তিনি স্টার জলসার এক্কা দোক্কা ধারাবাহিকে পোখরাজের ঠাকুরমার চরিত্রে পাঠ করছেন। এর আগে বউ কথা কও ধারাবাহিকে নিখিলের দিদার চরিত্রে আবার জল নূপুর ধারাবাহিকে গৃহবধুর চরিত্রে পাঠ করে দর্শকদের মন জিতে নিয়েছিলেন।

সময়ের গতি পেরিয়েছে, এখন বয়স হয়েছে অনুসূয়া মজুমদারের। তবে ৭০ পেরিয়ে গেলেও তার প্রতিফলন কিন্তু পড়েনি তার কাজে। এখনো ওপরের সারিতে থাকা চ্যানেলগুলোতে তিনি পাঠ করার সুযোগ পাচ্ছেন। তবে শুধু চাকরি, সিরিয়াল, ছবিতে অভিনয়েই থেমে থাকেননি এই অভিনেত্রী। ছবি পরিচালনার কাজের দিকেও তিনি মন দিয়েছেন। সহ পরিচালক হিসেবে তার কাজ করা হয়ে গেছে। এখন তিনি মন দিয়েছেন পরিচালনার কাজে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।