বাংলা সিরিয়াল

মিঠাই ধারাবাহিক শেষ হবে এমন গুঞ্জন রোটতে না রোটতেই বাচ্চা এসে হাজির মিঠাইয়ের কোলে! মোদক পরিবারের মিঠাইয়ের কোল আলো করে নতুন সদস্য এলো নাকি?

এক সময়ের জি বাংলা তথা গোটা বাংলার সব থেকে জনপ্রিয় ধারাবাহিক ছিল “মিঠাই”। সব থেকে বেশি বার বাংলা সেরা ধারাবাহিক হিসেবে রেকর্ড ব্রেক করেছিল এই ধারাবাহিক। কিন্তু বর্তমানে এই ধারাবাহিকের টিআরপি রেটিং এর অবস্থা খুবই শোচনীয়। আগে যে ধারাবাহিক বারবার টিআরপি লিস্টে সবথেকে বেশি শুধুই টপার হয়েছে তাঁরা আজ নেমে এসেছে ৫ নম্বরে। প্রথম তিনেও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না এই ধারাবাহিককে।

মোদক পরিবার কোন মতেই আর নিজেদের পারিবারিক বন্ধন দেখিয়ে দর্শককে টানতে সার্থক হচ্ছে না। তাই মিঠাই ভক্তরা চাইছিলেন যে এবার মোদক পরিবারে নতুন সদস্যের আগমন ঘটালে হয়তো দর্শক আকৃষ্ট হবেন। আর তারপরেই সোশ্যাল মিডিয়াতে সিড আর মিঠাইয়ের কোলে একটি বাচ্চার ছবি দেখে প্রশ্ন করেছেন দর্শক। তবে কি এই বাচ্চাটি মোদক পরিবারের নতুন সদস্য হবে?

মূলত ধারাবাহিকের টিআরপি আবার পুরনো স্থানে ফিরিয়ে আনার জন্যই দর্শকেরা দাবি করেছিলেন মিঠাই আর সিডের বাচ্চা আসুক এমন ঘটনা দেখানোর। যাতে দর্শক আকৃষ্ট হয়ে ধারাবাহিকটি দেখেন। আর তারপরেই সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হলে এমন একটি ফটো। যেখানে মিঠাই আর সিড দুজনের কোলেই দেখতে পাওয়া গিয়েছে একটি বাচ্চাকে। আর তাতেই কিছুক্ষণের জন্য দর্শকের ধারণা হয়েছিল যে এই বাচ্চাটিই হয়তো দেখানো হবে মিঠাইয়ের সিডের সন্তান হিসেবে। কিন্তু পরে জানা গিয়েছে ব্যাপারটি ঠিক তা নয়।

এমন অনেক ফ্যানসরা আছেন যারা নিজেদের বাচ্চাকে নিয়ে আসেন নিজেদের পছন্দের কলাকুশলীদের দেখতে। আর সে আর্টিস্টদের কাছে বাচ্চাকে দিয়ে তাঁদের সাথে ছবি নেন বাচ্চাটির। এই বাচ্চাটিও ঠিক তেমনি একটি বাচ্চা। কিন্তু দর্শক প্রথমে নিজেদের কনফিউশন থেকে নিজেদের মতো করে একটি ধারণা তৈরি করে নিয়েছিলেন। একজন কমেন্টে লিখেছিলেন, “কী কিউট! এই বাচ্চাটাই কি এদের বাচ্চা হয়ে আসবে নাকি! আমি চাইছিলাম এরকমই কিছু একটা হোক”।

প্রসঙ্গত গত সপ্তাহের টিআরপি লিস্টে মিঠাইয়ের স্থান অনেক কমে গিয়েছে। প্রথম হওয়া তো দূরের কথা প্রথম তিনেও দেখতে পাওয়া যায়নি ধারাবাহিককে। সিআরপি রেটিং এর পঞ্চম স্থান অধিকার করেছিল মিঠাই। আর তাতেই মিঠাই ভক্তরা বেশ ভালো মতোই সংশয় আছেন যে তাহলে কি পুজোর পর বন্ধ হয়ে যাবে মিঠাই? কারণ এমনটাই আমরা দেখে আসছি বেশ কিছু মাস ধরে। যে ধারাবাহিক টিআরপি নিতে পারছে না বা স্লটলেডিং করতে পারছে না তাদেরকে হঠাৎ করেই বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে বিশাল ফ্যান বেস থাকার পরেও। তাই ভালোমতোই গুঞ্জন ঘটেছিল যে পুজোর পর হয়তো মিঠাই বন্ধ হয়ে যেতে পারে। কিন্তু এবার এ বিষয়ে মুখ খুলেছেন মিঠাই ধারাবাহিকের পরিচালক রাজেন্দ্র প্রসাদ দাস। পরিচালক জানান, “এরকম কথা আমিও শুনছি। তবে আমার কাছে অফিসিয়াল কোনও খবর নেই। শুধু বলব আগেও যখন টিআরপি পড়ে এসেছিল তখন এরকম খবর রটেছিল। একটা জিনিস তো মানতেই হবে কোনও জিনিস শুরু হলে তা শেষও হবে। সেটা কবে হবে তা আমি নিজেও জানি না। এরকম কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়ে থাকলে”।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by SidHai | AdritRisha (@sidhaifcx)

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।