বাংলা সিরিয়াল

“প্রথম বছর ১০ – ১২ টা বিয়ে পরের বছর ১০-১২ টা বিবাহ বার্ষিকী মিঠাইয়ের গল্প তৈরি!” – মিঠাই এর গল্প নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোল করলেন নেটিজেনারা

বর্তমানে বাংলা বিনোদন মাধ্যমের অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক মিঠাই। ৫৬ বার সেরার সেরা এই ধারাবাহিক নিয়ে আলোচনার শেষ নেই। আমরা সকলেই জানি মিঠাইকে নিয়ে যেমন সোশ্যাল মিডিয়ার একটা বড় অংশ আছে যারা ট্রল করেন। আবার আরেকটা বিশাল অংশ আছেন যারা মিঠাই ভক্ত। তাই সব সময়ই কোন না কোন ঘটনাকে ঘিরে এই ধারাবাহিক খবরের শিরোনামে থাকে।

সম্প্রতি অনেক বাধা বিপত্তি কাটিয়ে মোদক পরিবারে এসেছে খুশির আমেজ। জন্মাষ্টমী পালনের পর এবার মিঠাই আর সিদ্ধার্থের বিবাহ বার্ষিকীর উৎসব চলছে মনোহরাতে। খুব সুন্দর করেই বেশ গুছিয়ে বিবাহ বার্ষিকীর গল্প দেখানো হয়েছে। কিন্তু এর পরেই এই বিবাহ বার্ষিকী পালন নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হলো সমালোচনা। কারণ সোম তোর্সার বিয়ে, রুদ্র নিপার বিয়ে, রাতুল শ্রীতমার বিয়ে ও সর্বোপরি সিদ্ধার্থের বাবা সমরেশ ও নতুন মা অনুরাধার বিয়ে হয়েছে মোদক পরিবারে। মিঠাই ও সিদ্ধার্থের বিয়ে বাদ দিলেও এতগুলো জুটির বিবাহ বার্ষিকী তবে দেখানো হবে? এমন প্রশ্ন জেগেছে সমালোচকদের মনে।

সেই কারণেই সোশ্যাল মিডিয়ার সমালোচক এর একাংশ বলছে যেমন মিঠাই সিদ্ধান্তের বিয়ের এক বছর পালন হচ্ছে তা দেখানো হলো। ঠিক তেমনই যদি আরো বাকি জুটিদের বিবাহ বার্ষিকী দেখাতে হয় তাহলে তো একটা বছর সেই গল্পতেই কাটিয়ে ফেলবে। একজন সমালোচক বিষয়টিকে একদম সরাসরি সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, “প্রথমে বছরে ১০-১২ টা বিয়ে তারপর বছরে ১০-১২ টা বিবাহবার্ষিকী মিঠাইয়ের গল্প তৈরি”

তবে এই পোস্ট দেখে চুপ করে থাকেনি মিঠাই ভক্তরাও। এই কথার প্রতিবাদে নেটিজেনরা লিখেছেন বিয়ে যতবারই দেখানো হোক ১০০ বার দেখানো হলেও তা নিজের স্বামী-স্ত্রীর সাথেই দেখানো হচ্ছে। একবার নায়কের সাথে বা একবার ভিলেনের সাথে তো দেখানো হচ্ছে না। একজন স্বামী বা স্ত্রীর হাজারটা বিয়েও দেখানো হচ্ছে না। তেমনি আরেকজন প্রতিবাদ জানিয়ে লিখেছেন, ধারাবাহিক একটি বিনোদন মাধ্যম মানুষ বিনোদনের জন্য ধারাবাহিক দেখে থাকেন। তাই ধারাবাহীকে মানুষ পজেটিভ জিনিস খোঁজেন। যে ধারাবাহিকে পজিটিভ ঘটনা দেখানো হয় গল্প খুব দ্রুত শেষ করা হয়। সে ধারাবাহিকের প্রতি মানুষ আকৃষ্ট হন। ঠিক সেই কারণেই এতবার বাংলার সেরা হয়েছে মিঠাই।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।