বাংলা সিরিয়াল

শুরু হতেই এসেছে বিয়ের পর্ব! বড়বৌ’য়ের কাজের লোক হয়ে ঢুকে, ছোটবৌ হয়ে বেরোলো! হা হুতাশ দর্শকদের

এখনকার বাংলা চ্যানেলের সিরিয়াল গুলোতে নতুন নতুন গল্পের মোর আসছে। এ বলে আমায় দেখ তো ও বলে আমায় দেখ। কারনটা হল টিআরপির তালিকায় ভালো ফলাফল করা। এখনকার বাংলা সিরিয়ালের টিকে থাকার মূল ভিত্তি হল টিআরপির তালিকায় ভালো ফল করা। যে সিরিয়ালটি টিআরপি তালিকায় ভালো ফলাফল অর্জন করে সেটি বহুদিন ধরে চলে আর যে সিরিয়ালটি টিআরপি তালিকায় ভালো ফলাফল করে না সেটি কিছুদিনের মধ্যেই বন্ধ হয়ে যায়।

এখনকার মানুষজন সিনেমার থেকে সিরিয়াল কে বেশি পছন্দ করেন। কারণ একটা সিরিয়াল কয়েক বছর ধরে চলতে থাকে। সেখানে প্রতিদিনই অন্যান্য গল্প দেখানো হয়। কিন্তু সিনেমাতে সেটা হয় না। সিনেমা মাত্র তৈরি হয় তিন ঘন্টার জন্য। অপরদিকে সিরিয়াল দীর্ঘ বছর ধরে চলার জন্য সেটা মানুষের কাছে একটা পরিবার হয়ে ওঠে। এইজন্য বাংলা সিরিয়াল গুলিতে প্রায়ই নতুন মুখ আনা হচ্ছে। যাতে নতুন অভিনেতা অভিনেত্রীরা খুব সহজেই দর্শকদের মন জয় করে নিতে পারে।

স্টার জলসার নতুন সিরিয়াল গুলির মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে নবাব নন্দিনী। নবাব আর নন্দিনী নামে দুইজন ছেলে মেয়ের গল্প নিয়েই শুরু হয়েছে এই ধারাবাহিকটি।এরই মাঝে ঘটে গেল বিপত্তি। সম্প্রতি এই ধারাবাহিকের একটি প্রমো ভিডিও সামনে এসেছে। যে স্পেশাল এপিসোড এর নাম দেওয়া হয়েছে গৃহলক্ষ্মীর গৃহপ্রবেশ। নবাব নন্দিনীকে বিয়ে করে বাড়িতে নিয়ে ঢুকেছে। নবাবের বিয়ে দেখে খুব খুশি তার মা। কিন্তু মুখ কালো হয়ে গেল নবাবের বড় বৌদি কমলিকার। আসলে কমলিকা সহ্য করতে পারে না নন্দিনীকে।

বহু দর্শকরা প্রমো দেখে উত্তেজিত হয়ে পড়েছে। কমেন্ট বক্স ভরে গেছে দর্শকদের প্রশংসায়। আবার অনেক দর্শকই বলছে এখন থেকেই কিছু বিশ্লেষণ করতে যাব না কারণ মনে হচ্ছে কিছু একটা সাসপেন্স রয়েছে গল্পে।

তবে এ পাশাপাশি বহু দর্শকরা সমালোচনাও করেছেন। তাদের মতে এত তাড়াতাড়ি কেন বিয়ে দিয়ে দেওয়া হলো? নন্দিনী বাড়ির কাজের লোক হয়ে ঢুকেছিল আর এখন সে বাড়ির বউ। সব ধারাবাহিকে কি বিয়ে ছাড়া আর কোনো ঘটনা নেই?

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।