বাংলা সিরিয়াল

‘মিঠাইয়ের ভিলেনগুলো সব অকাজের! তুই ভিলেন কোথায় নায়িকার দিকে তাকাবি তা না ভাবিজি ভাবিজি করেই কানের পোকা মেরে দিল’-দেবর জোনের বাইরে মিঠাই ধারাবাহিকে নতুন ভিলেন আনুন অনুরোধ মিঠাই ভক্তদের!

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক মিঠাই অন্যান্য ধারাবাহিকের থেকে একেবারে আলাদা। আর পাঁচটা ধারাবাহিকের মধ্যে যেভাবে নায়কের একাধিক বিয়ে বা নায়িকার একাধিক বিয়ে বা বিভিন্ন রকম পরকীয়া জনিত সম্পর্ক দেখানো হয় তা জি বাংলার মিঠাই ধারাবাহিকে দেখানো হয় না সেই কারণেই এই ধারাবাহিকটি এত বার বেঙ্গল টপার হয়েছে বলে মনে করেন বেশিরভাগ মানুষ। এই ধারাবাহিকে একটি যৌথ পরিবারের গল্প আছে হল্লা পার্টির হই হুল্লোড় আছে। কিন্তু পারিবারিক সদস্যদের মধ্যে ঝামেলা, পরিবারের বিভিন্ন ঘনিষ্ঠ আত্মীয়দের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক ইত্যাদি দেখানো হয় না। পারিবারিক বন্ডিংটা ভীষণভাবে প্রাধান্য পায় এই ধারাবাহিকে।

এই ধারাবাহিকে ভিলেন সবসময় বাইরের লোক হয় কিন্তু বাড়ির খুব কাছের নায়কের দাদা বা ভাইকে কখনো ভিলেন হিসেবে দেখানো হয় না। পরিবারের ইউনিটি সব সময় এই ধারাবাহিকে দেখানো হয় কিন্তু এর পাশাপাশি এই ধারাবাহিকে আরও একটা বিষয় দেখানো হয় না যা সমস্ত চিরাচরিত ধারাবাহিকে দেখানো হয় আর তাই নিয়েই মিঠাই দর্শকদের দীর্ঘকালীন ক্ষোভ রয়েছে। যে কোনো ধারাবাহিকেই ভিলেন মানেই সে এসে নায়িকার দিকে নজর দেবে এবং ভিলেনকে নিয়ে নায়ক একটু নায়িকার প্রতি জেলাসি ফিল করবে, ভিলেনের সাথে নায়কের মারপিট হবে নায়িকা কে নিয়ে এইসব দৃশ্য দেখানো হয়। কিন্তু মিঠাই ধারাবাহিক সম্পূর্ণ আলাদা এদিক থেকেও।

মিঠাই ধারাবাহিকের দুইজন হ্যান্ডসাম ভিলেনকে আনা হয়েছিল, একজন ওমি আগরওয়াল আর আরেকজন আদিত্য আগারওয়াল কিন্তু কেউই মিঠাইয়ের দিকে নজর দেওয়া তো দূর – শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মিঠাই কে ভাবিজি ভাবিজি করেই গেছে যা নিয়ে মিঠাই দর্শকরা বেজায় চটেছেন। তাদের বক্তব্য, হ্যান্ডসাম ভিলেন গুলো কোন কাজেই এল না কেউ তো একটু মিঠাইএর দিকে নজর দিতে পারতো!

একজন আবার সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন,“ তুই ভিলেন। তুই হিরোইনের দিকে তাকাবি, তাকে টিজ করবি, হিরোকে রাগিয়ে জেলাস ফিল করিয়ে বেদরক মার খাবি। কিন্তু তা না তুই ভাবিজি ভাবিজী করে কানের পোকা মে রে ফেলবি কেন

ভাই প্রলয় না কে,,, তুই যদি আসিস তুই অন্তত এই দেবর জোন হয়ে জাস না।”

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।