বাংলা সিরিয়াল

অনুরাগের ছোঁয়াকে হারাতে একই প্রোডাকশন হাউসের দুটি ধারাবাহিক লড়ছে দুই ভিন্ন চ্যানেলে! বাংলা ধারাবাহিকের ইতিহাসে যা প্রথম!

একটি ধারাবাহিকের সঙ্গে একটি ধারাবাহিকের টক্কর চলে এবং সেটাই স্বাভাবিক কিন্তু সেই দুটি ধারাবাহিক কে একে অন্যের সাথে টক্কর দিতে গেলে প্রথমে দুটি ধারাবাহিককে দুটি ভিন্ন চ্যানেলের হতে হবে কারণ একই চ্যানেলের দুটি ধারাবাহিকের মধ্যে রেষারেষি হয় না। তারপর দুটি ধারাবাহিককে দুটি ভিন্ন প্রোডাকশন হাউসের হতে হবে। কারণ একই প্রোডাকশন হাউসের এক‌ই স্লটে চলা দুটি ধারাবাহিকের মধ্যে কখনোই লড়াই হয় না। কোন প্রডাকশন হাউজই চাইবে না যে তার কোন একটি ধারাবাহিক খারাপ হোক সে চাইবে তার দুটি ধারাবাহিক‌ই বেস্ট হোক। সেই কারণে লড়াই সব সময় দুটো ভিন্ন প্রোডাকশন হাউজের দুটি ভিন্ন ধারাবাহিকের মধ্যে এবং দুটি ভিন্ন চ্যানেলের মধ্যে হয়।

কিন্তু সম্ভবত এই প্রথম একই প্রোডাকশনের দুটো ধারাবাহিক দুটি ভিন্ন চ্যানেলে একই স্লটে এসেছে। সেই দুটি ধারাবাহিকের মধ্যে একটি ধারাবাহিক হলো জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক লালকুঠি অপর ধারাবাহিকটি হলো সান বাংলার আপকামিং ধারাবাহিক আলোর ঠিকানা। দুটি ধারাবাহিকের সম্প্রচারের সময় রাত্রি সাড়ে নটা। বিষয়টা নিয়ে ইতিমধ্যেই একজন নেটিজেন সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে ফেলেছেন এবং সেই নেটিজেন সোশ্যাল মিডিয়ায় তার পোস্টে লিখেছেন, “Surinder vs Surinder

19 সেপ্টেম্বর থেকে একই স্লটে একই প্রোডাকশনের দুই ধারাবাহিক!

লালকুঠি — #ZeeBangla
আলোর ঠিকানা — #SunBangla”- এই বিষয়টি এতটাই নতুন যে সকলেই বিষয়টি দেখে বেশ অবাক হয়ে যাচ্ছেন।

কেউ কেউ তো আবার কমেন্ট বক্সে লিখছেন তাহলে কি লালকুঠি শেষ হয়ে যাবে সেই কারণে আলোর ঠিকানা রাত্রি সাড়ে নয়টার স্লট পেল সান বাংলায়? কেউ আবার বলছেন এস ভি এফ এর অনুরাগের ছোঁয়াকে হারাতে সুরিন্দর ফিল্মস ২ চ্যানেলে উঠে পড়ে লেগেছেন। তবে এই কথা বলায় বাহুল্য সান বাংলায় ধারাবাহিক মানুষ খুব একটা বেশি না দেখলেও আলোর ঠিকানা ধারাবাহিকটিতে কিন্তু বেশ নতুনত্ব রয়েছে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।