বাংলা সিরিয়াল

“লালন আর কটা বিয়ে করবে বুঝতে পারছি না, ওর বিয়ে দেখতে দেখতে আমরা হাপিয়ে গেছি” – ধুলোকানায় এক বছরের মধ্যে তিনবার বিয়ের পিড়িতে যেতে দেখানো হলো লালনকে! খিল্লি করছেন নেটিজেনরা

বাংলা ধারাবাহিক জগতের অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো “ধূলোকণা”। একটা সময় ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তা একেবারে তুঙ্গে ছিল। লীনা গঙ্গোপাধ্যায় এরকম আরো অনেক ধারাবাহিক লিখেছেন যার মধ্যে সবকটি ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তাই অনেকটা। এই ধারাবাহিকতার ব্যতিক্রম নয়। ধারাবাহিকের লালন আর ফুলঝুরির বিয়ে নিয়ে দর্শক বেশ উৎসাহিত ছিলেন।

অনেক সাধ্য সাধনার পর লালন আর ফুলঝুরির বিয়ের দৃশ্য দেখানো হয়। যদিও লেখিকা লীনা বেশ ভালো মতোই অপেক্ষা করিয়েছিলেন দর্শকদের। অনেক কান্ড দেখানোর পর শেষমেষ যখন লালন আর ফুলঝুরির বিয়ে হয় তখন বেশ ভালো মতোই টিআরপি টানতে পেরেছিল ধুলোকণার টিম। এমনকি সেই সময় এ ধারাবাহিকের মাথায় ওঠে বঙ্গ সেরা ধারাবাহিকের শিরোপা। তারপর হয়ে গিয়েছে বেশ কয়েকটি গল্প। আর দেখানো হয়েছে যে সমুদ্রে ডুবে গিয়ে মৃত্যু ঘটেছিল লালনের। কিন্তু মৃত্যু হয়নি তার বরং সে ডাক্তারের বাড়িতে ছিল স্মৃতিশক্তি হারিয়ে।

স্মৃতিশক্তি হারানোর ফলে তার কাউকেই মনে নেই। অন্যদিকে এই কয়েকদিনের মধ্যেই লালনের প্রেমে পড়ে যায়, ডাক্তারের মেয়ে তিতির। অন্যদিকে ফুলঝুরি আর বাড়ির সব লোক জেনে যায় যে লালন বেঁচে আছে। ডাক্তার লালনের স্মৃতিশক্তি ফেরাবার জন্য পরীক্ষা নিতে গিয়ে নিজের মেয়ের সাথে বিয়ে ঠিক করে লালনের। সেখানে উপস্থিত থাকবে ফুলঝুরিও।

তিতিরকে বিয়ে করার জন্য আনন্দে মজে থাকলেও ফুলঝুরির নাম শুনলে সে তেলে বেগুনে জ্বলে উঠছে। তবে ফুলঝুরিকে দেখলেই তার কেন এই রাগ সে বিষয়ে সে কিছু বুঝতেই পারছে না। অন্যদিকে তিতির ফুলঝুরিকে মিথ্যে কথা বলে লালনকে বিয়ে করার ফন্দি এঁটেছে। তাই শেষমেষ তৃতীয়বারের জন্য তিতিরের সাথে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছে লালন। আর তার আগেই চ্যানেল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে তাদের সোশ্যাল মিডিয়া পেজে শেয়ার করা হয়েছে বিয়ের কিছু ঝলক।

সেই ঝলকেই দেখা যাচ্ছে যে তিতিরের সাথে বিয়ের পিঁড়িতে বসে রয়েছে লালন। অন্যদিকে ফুলঝুরিও বিয়ের কনের মত সেজে এসেছে যেন সিঁদুর পড়ানোর সময় ফুলঝুরিকে দেখতে পেয়ে তার সবকিছু মনে পড়ে যায়। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিওগুলিতে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে যে লালন তিতিরকেই সিঁদুর পড়াতে দেখা যাচ্ছে। এইরকম পরিস্থিতি এর আগেও হয়েছিল চুরুই এর সাথে। বিয়ে ঠিক হয়ে বিয়ে ভেঙে গিয়েছিল। এই ভিডিও দেখেই সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে খিল্লির ঝড় উঠেছে। একজন বলছেন, “লালন আর কটা বিয়ে করবে বুঝতে পারছি না, ওর বিয়ে দেখতে দেখতে আমরা হাপিয়ে গিয়েছি”। আরেকজন লিখেছেন, “সব মেয়েদেরই খালি লালন কে বিয়ে করতে ইচ্ছে করে, কি অদ্ভুত এক বিয়ে দিয়েই সিরিয়ালটা একটা বছর কাটালো”।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।