বাংলা সিরিয়াল

শাড়ি থেকে বেরিয়ে এবার হট প্যান্ট আর টপে বোল্ড অবতারে সকলের সামনে হাজির সকলের প্রিয় মিঠাই! মিঠাই কে দেখে যেন আবারও পাগল হয়ে গেলেন তাঁর অনুরাগীরা

বর্তমানে জি বাংলার তথা গোটা বাংলায় সব থেকে জনপ্রিয় ধারাবাহিক মিঠাই। ৫৬ বার বাংলার সেরা সেরা হয়েছে এই ধারাবাহিক। এর আগে এতবার টিআরপি টপার হতে পারেনি আর কোন ধারাবাহিকই। রেকর্ড ব্রেকিং এই ধারাবাহিক সকলের কাছে দিন দিন যেনো আরো বেশি প্রিয় হয়ে উঠছে। এই ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্রে মিঠাই কে মূলত শাড়ীতেই দেখতে পাই আমরা। কিন্তু অভিনেত্রী মাঝেমধ্যেই ওয়েস্টার্ন পোশাকেও ধরা দেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর সেই সব ছবি দেখেই চক্ষু ছানা পড়া হয় তাঁর অনুরাগীদের।

মিঠাই ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করে অভিনেত্রী সৌমীতৃষা বেশ ভালই জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। আর এই ধারাবাহিকেরও জনপ্রিয়তা কিছু কম নয়। তাইতো ধারাবাহিকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সৌমির ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে জানার জন্য মুখিয়ে থাকেন দর্শক। যদিও অভিনেত্রী নিজে কখনোই নিরাশ করেন না তাঁর দর্শকদের। মাঝেমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেল থেকে তাঁর বিভিন্ন ছবি পোস্ট করেন। যা দেখে দর্শক একেবারে মুগ্ধ হয়ে যান। ঠিক যেমন আজকে সকালেও নিজের কিছু বোল্ড ছবি পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী।

এই ছবিতে অভিনেত্রী পরনে রয়েছেন সাদা রংয়ের শর্টস আর গোলাপি রঙের ফুল স্লিভ টপ। কোমর পর্যন্ত লম্বা ঘন চুল পুরোটাই খোলা। ঠোঁটে হালকা লিপস্টিক। আর সব সময়ের মতোই মুখে মিষ্টি হাসি। হলুদ রঙের স্কুটিতে বসে ছবি তুলেছেন অভিনেত্রী। অভিনেত্রীকে ছবি তুলে দিয়েছেন তাঁর বেস্ট ফ্রেন্ড সায়ক। জানা যায় স্কুটিটিও সায়কের।

অভিনেত্রীর প্রতি অনুরাগীদের ভালোবাসা ফুটে উঠেছে ছবির কমেন্ট বক্সে। কেউ কেউ মিঠাইকে ‘পিংক কুইন’ নামের আখ্যা দিয়েছেন। কেউ আবার বলেছেন, হলুদ পরী। প্রসঙ্গত আমরা সকলেই জানি মিঠাইয়ের প্রিয় রঙ হলুদ। আর তার ওপরে হলুদ রঙের স্কুটি দেখে অনেকেই বলছেন আমাদের মিঠুরানী যদি স্কুটি চালাতে জানতো তবে সায়কের স্কুটি সে নিয়েই নিত। আবার কেউ কি অভিনেত্রীকে স্কুটি চালানো শেখার কথাও বলেছেন। আবার এক হীতাকাঙ্খী অভিনেত্রীকে বলেন তিনি চান লাল রঙের গাড়ি করে সৌমিকে নামতে দেখতে। অর্থাৎ সৌমির সাফল্য তার অনুরাগীরা যে কতটা খুশি হন তার প্রমান বরাবরই পেয়ে যান অভিনেত্রী।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by SOUMITRISHA (@soumitrishaofficial)

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।