বাংলা সিরিয়াল

“মহিষাসুরমর্দিনীতে তো কোনদিন মা দুর্গার ভূমিকায় অভিনয় করার সুযোগ পাবে না তাই সিরিয়ালে করে নিল” – পিয়নের কাজ করতে করতে প্রফেশনাল সিঙ্গার থেকে এখন আবার ত্রিশূল হাতে মা দুর্গা হয়ে গেছে চিঠি! “সাহেবের চিঠি” ধারাবাহিকে অদ্ভুত ট্র্যাক দেখে খিল্লি করছেন দর্শক

বর্তমানে ধারাবাহিকে বেশ কিছু উদ্ভট ঘটনা দেখানো হয়। ধারাবাহিক মানুষের বেশ পছন্দের জিনিস হলেও এ ধরনের উদ্ভট ঘটনায় বেশ ভালই বিরক্ত হন দর্শক। নারী উন্নতির বিষয় দেখাতে গিয়ে নারীদেরকেই ছোট করে ফেলছেন ধারাবাহিকের নির্মাতারা। কোনটা বাস্তবচিত আর কোনটা কাল্পনিক কোন কিছুর মধ্যেই যেন আর পার্থক্য করতে পারছেন না তাঁরা। এখনকার দর্শক কাল্পনিক বিষয় দেখতে খুব একটা বেশি পছন্দ করেন না। তবে দর্শকের চাহিদা মত ধারাবাহিকের নির্মাতারা কাজও করবেন না। ঠিক যেমন হচ্ছে সাহেবের চিঠি ধারাবাহিকে।

সাহেবের চিঠি ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে এই ধরনের কিছু অদ্ভুত ঘটনা। ধারাবাহিক একটি প্রথমে শুরু হয় একটি সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে পিয়নের কাজ করবে তাই দিয়ে। তারপরেই হঠাৎ করে তার বিয়ে হয়ে গেল জনপ্রিয় গায়ক সাহেবের সাথে। তারপরে তো চাকরি-বাকরি সব মাথায় উঠলো। সারাদিন শ্বশুরবাড়িতেই থাকে। তারপর এবার ধারাবাহিক দেখানো হচ্ছে সে প্রফেশনাল গায়িকা হয়ে উঠছে, জায়গায় জায়গায় কাজ করার জন্য শো আসছে। তবে রিসেন্ট এপিসোডের আগামী পর্বে যা দেখানো হলো তা দেখে সোশ্যাল মিডিয়া যদি রীতিমত খিল্লি করছেন দর্শক।

আসলে ধারাবাহীকে দেখানো হচ্ছে যে চিঠি একেবারে মা দূর্গা। সে সবকিছু করতে পারে। পিয়নের চাকরি করতে করতে এখন প্রফেশনাল গায়িকা হয়েছে। বাড়ির সমস্ত সমস্যার সমাধান করছে নিজেই একা হাতে। এবার চিঠি দুর্গা ত্রিশূল নিজের হাতে নিয়ে গৌতমকে বধ করবে। আসলে ধারাবাহিকের পর্বে দেখানো হচ্ছে যে মুখার্জি পরিবারে দেবী দুর্গার আরাধনা হচ্ছে। এই সুযোগেই গৌতম টাকা নিয়ে পালাতে যাবে। আর তখনই চিঠি তাকে ধরে নিয়ে বধ করবে।

সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে এই দৃশ্য দেখেই হাসির রোল উঠেছে। কেউ কেউ বলছেন এত জবা মার্কা ফিল আসছে। এবার হুট করে দেখবো সাইন্টিস্ট হয়ে যাচ্ছে। আবার কেউ বলছেন মেয়েরা সব পারে ঠিক আছে তবে এসব কল্পনাপ্রবণ জিনিস দেখানোর কি মানে। আবার কেউ বলছেন মহিষাসুর মধ্যে নিতে দেবী দুর্গার রোল করতে কোনদিনই পারবেনা তাই এখানে মনের স্বাদ মিটিয়ে নিচ্ছে। এ ধরনের মন্তব্য দেখতে পাওয়া গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।