বাংলা সিরিয়াল

এই কারণের জন্যই আর বাংলা সিরিয়াল দেখতে পছন্দ করছে না দর্শকরা

একটা সময় ছিল যে সময় গ্রাম শহরের প্রতিটি মানুষদের কাছে বিনোদনের একমাত্র মাধ্যম বলতে ছিল টিভি (Bengali Telivision)। পরিবারের সকলে মিলে তখন একসাথে টিভি সিনেমা বা সিরিয়াল দেখা হতো। তবে সেই সময় পাড়ার মোড়ে মোড়ে সিনেমা হল বাবা মাল্টিপ্লেক্স গড়ে ওঠেন। তখন মানুষের মনে আনন্দ প্রদানের জন্য একমাত্র ছিল দূরদর্শন। বাংলা, হিন্দি সিরিয়াল (Bengali Mega Serial), বিভিন্ন টেলিভিশন শো মিলিয়ে মিশিয়ে গোটা পরিবারের সঙ্গে বেশ আনন্দের সঙ্গেই কাটতো দিনগুলো।

কিন্তু এখন যুগ পরিবর্তন হয়েছে। টেলিভিশনের রুচি বদলের সাথে সাথে দর্শকদেরও রুচি পাল্টে গেছে। এখনকার সিরিয়ালে নেই কোনো বাস্তবতা বাবা-মা, ঠাকুমা-ঠাকুরদা, কাকা-পিসি, মামা-মাসিরাই হয়ে উঠলেন ঘরের শত্রু! গল্পে ঢুকলো পরকীয়া, অবৈধ সম্পর্ক, কুটকাচালি ইত্যাদি। এইজন্যেই এখনকার প্রজন্মের একটা বড় অংশ সিরিয়ালের মুখোমুখি হয় না। এখনকার প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের হাতে ল্যাপটপ এবং স্মার্টফোন থাকে। আর এর মাধ্যমেই তারা খুঁজে পায় পৃথিবীর পুরো সম্ভারকে। এই কারণেই বাংলা সিরিয়াল এখনকার প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের দর্শক হিসেবে হারাচ্ছে।

তবে ল্যাপটপ স্মার্টফোনের যুগে ওটিটি প্ল্যাটফর্মের দর্শকদের সংখ্যাটা যেন কিছুটা বেশি বেড়েছে। এর প্রধান কারণ হলো করোনা। করোনা নাহলে হয়তো মানুষ জানতো না যে সিরিয়াল টিভিতে সম্প্রচারিত হওয়ার আগেই পৌঁছে যাচ্ছে ওটিটি প্ল্যাটফর্মে।

এখনকার দর্শকদের মধ্যে বেশিরভাগই টিভিতে সিরিয়াল দেখেনা। তারা পছন্দ করে স্মার্ট ফোনে দেখতে। কারণ স্মার্ট ফোনে সিরিয়াল দেখলে যখন সময় পাওয়া যায় সেই সময়ই দেখা যায়। কিন্তু টিভিতে সেটা সম্ভব নয়। এছাড়াও ওটিটি প্লাটফর্মে যে শুধু বাংলা সিরিয়াল থাকে তা নয় বিভিন্ন দেশের কনটেন্টও থাকে।

দূরদর্শন যখন প্রথম চালু হয় তখন এত সিরিয়ালের ভিড় ছিল না। এত চ্যানেলও ছিল না। এখনকার চ্যানেলগুলির মূল লক্ষ্য হয়েছে টিআরপির তালিকায় প্রথম স্থান অধিকার করা। আর এই জন্যেই সিরিয়ালের কোয়ালিটি খুবই খারাপ হয়ে যাচ্ছে। আর এই কারণেই এখনকার প্রজন্ম মানুষেরা টিভি ছেড়ে ভিড়েছেন ওটিটি প্ল্যাটফর্মের দিকে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।