Stories

সারাদিন হসপিটালে কাজের পর বিকেলে মাত্র একটাকার বিনিময়ে রোগী দেখেন ডাক্তারবাবু! সামনে এল ওড়িশার ‘এক টাকার ক্লিনিকে’র গল্প

সম্প্রতি নেটিজেনদের সামনে এসেছে ওড়িশা সম্বলপুর জেলার বুরলায় অবস্থিত বীর সুরেন্দ্র সাই ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সের সহকারী অধ্যাপক ডাঃ শংকর রামচান্দানির মহানুভবতার গল্প। কিভাবে সারাদিন হসপিটালে অমানুষিক খাটুনির পর সন্ধ্যায় মাত্র এক টাকার বিনিময় নিজেকে গরিব মানুষের চিকিৎসায় নিয়োজিত করেন এই ডাক্তারবাবু, সেই গল্প জানতে পেরে মুগ্ধ হয়েছেন নেটিজেনরা।

প্রসঙ্গত বর্তমানে সরকারি হাসপাতালের ডাক্তারদের বিরুদ্ধে মাঝেমধ্যেই নানান অভিযোগ তুলতে দেখা যায় সাধারণ মানুষকে। কিন্তু উড়িষ্যার এই ডাক্তারবাবুর গল্প তুলে ধরেছে একটা বিপরীত ছবিকে।

সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে ডক্টর শংকর রামচান্দানি জানিয়েছেন তার বাবা একজন সামান্য মুদি দোকানের মালিক ছিলেন। কিন্তু তার স্বপ্ন ছিল তার ছেলে ডাক্তার হয়ে ফ্রিতে নার্সিংহোম চালাবেন। কিন্তু এখনকার দিনে ফ্রিতে নার্সিংহোম চালাতে গেলে যে অর্থবলের দরকার হয় তা তার নেই বলে তিনি শুরু করেছেন এক টাকার ক্লিনিক। যেখানে প্রতিদিন ৩০ থেকে ৩৫ জন মানুষের চিকিৎসা করেন তিনি মাত্র এক টাকার বিনামূল্যে।

তবে কেন তিনি এক টাকা নেন সে প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে ডাক্তারবাবু জানিয়েছেন সাধারণ মানুষ যাতে বিনামূল্যে পরিষেবা পাচ্ছেন এমনটা মনে না করেন তাই এক টাকা পারিশ্রমিক নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। বলাই বাহুল্য ইতিমধ্যেই তার গল্প প্রশংসা কুড়িয়েছেন নেটিজেনদের কাছ থেকে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।