Stories

অভিনেত্রী নয়, ডাক্তার হতে চেয়েছিলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী সোহিনী সান্যাল! অভিনয় করতে তিনি কোনদিনই চাননি!

টলি পাড়ার জনপ্রিয় অভিনেত্রী সোহিনী সান্যাল বর্তমানে টেলি পর্দার একজন পরিচিত মুখ। কিছুদিন আগে শেষ হাওয়া ধারাবাহিক ‘মন ফাগুন’ এ তিনি অভিনয় করে ছিলেন। বর্তমানে স্টার জলসার অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক গাঁটছড়াতে অভিনয় করেন অভিনেত্রী। কিন্তু অভিনেত্রী নিজে কোনদিন অভিনয় জগতে আসতে চাননি পরবর্তীতে এখানে কাজ করতে করতে তিনি অভিনয়টাকেই ভালোবেসে ফেলেন।

আসলে সোহিনীর বাবার ব্লাড ক্যান্সার হয়েছিল সেই সময় প্রচুর টাকার খরচ হয় এবং ডাক্তার দেখাতে গিয়ে প্রচুর অর্থনৈতিক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়, এই সময় সোহিনীর বাবা বুঝেছিলেন বাড়িতে একটা ডাক্তার থাকা কত প্রয়োজন তাই তিনি মেয়েকে বলেছিলেন তুই না বড় হয়ে ডাক্তার হোস এইটাকেই মনে প্রাণে গ্রহণ করে নিয়েছিলেন সোহিনী তিনি প্রতিজ্ঞা করেছিলেন বড় হয়ে তিনি ডাক্তার হবেন এরপর তিনি মাধ্যমিক পাস করেন এবং মাধ্যমিকের খুব ভালো রেজাল্ট করেন কিন্তু তারপর তিনি বাস্তবকে উপলব্ধি করতে শেখেন তিনি বুঝতে পারেন তিনি যদি সাইন্স নিয়ে পড়া শুরু করেন তাহলে তার মাকে কিডনি বিক্রি করে পড়াশোনা করাতে হবে তাই তিনি কমার্স নিয়ে পড়তে শুরু করেন।

তিনি এক জন নৃত্যশিল্পী ছিলেন, কলেজে পড়াকালীন তিনি মনে করেন যে, তার পরিবারকে তার সাহায্য করা উচিত। ‌ এই সময় অভিনেত্রী মডেলিং এ ঢুকে পড়েন, কলেজের বহু বন্ধু বান্ধব‌ই তাকে মডেলিংয়ের জন্য অনুপ্রাণিত করেছিলো।

কিন্তু কয়েকটা ফ্যাশন শো করবার পর অভিনেত্রীর মনে হয় এই জগতটা তার জন্য নয়।‌ তখন তার ভারতনাট্যম নাচের স্কুলের শিক্ষিকার ছেলে তাকে অভিনয় জগতে আসার প্রস্তাব দেন এবং তার সাহায্যেই তিনি স্টুডিও পাড়ায় আসেন এবং কাজ শুরু করেন। তারপরের ইতিহাস সবাই জানা একের পর এক কাজ পেতে থাকেন তিনি আজ সোহিনী সান্যাল ভীষণ রকম জনপ্রিয় তার অভিনয়ের জন্য।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।