রাজ্য

মুখ্যমন্ত্রীর অনুপ্রেরণায় চপ ভাজলেন বিজেপি বিধায়ক! ‘দলবদল করবেন নাকি কটাক্ষ করলেন’, প্রশ্ন বাঁকুড়ার রাজনৈতিক মহলে

বেশ কিছুদিন আগে এক সরকারি বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন রাজ্যের বেকার ছেলে মেয়েদের সরকারি চাকরির জন্য অপেক্ষা ছেড়ে রোজগারের পথ খুলতে চপের দোকান দেওয়া উচিত।এবার তার কথামতো চপ ভাজতে দেখা গেল বাঁকুড়ার বিজেপি বিধায়ক নীলাদ্রিশেখর দানাকে। বলাই বাহুল্য বিজেপি বিধায়ককে প্রকাশ্যে চপ ভাজতে দেখে রীতিমত ভিড় জমে যায় তার দোকানের সামনে।পাশাপাশি বিজেপি ছেড়ে তিনি তৃণমূলে যোগদান করবেন এমন জল্পনাও ভাসতে থাকে বাঁকুড়ার রাজনৈতিক মহলে।

তবে সমস্ত জল্পনা উড়িয়ে দিয়ে ওই বিধায়ক জানিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কোন কর্মসংস্থান করতে পারছেন না। কেবলমাত্র অস্থায়ী কর্মী দিয়ে সরকারি দপ্তরগুলি চালানোর হচ্ছে। তাই প্রতীকী প্রতিবাদ করতেই মুখ্যমন্ত্রীর উপদেশ মত চপ ভাজতে বসে ছিলেন তিনি।

প্রসঙ্গত বাঁকুড়ায় বিজেপি দুই সাংগঠনিক জেলা সভাপতির পদে নতুন মুখ নিয়োগ করতেই তীব্র চাঞ্চল্য দেখা গিয়েছিল বিজেপির বিধায়কদের মধ্যে। অনেকেই ইতিমধ্যে প্রতিবাদ জানাতে দলের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ত্যাগ করেছেন। অনেকেই যোগদান করেছেন তৃণমূলে। তবে নীলাদ্রি শেখর বাবু সমস্ত জল্পনা উড়িয়ে দিয়ে জানিয়েছেন দলবদল করার কোন পরিকল্পনা নেই তার মধ্যে। তবে গোটা বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলে বাঁকুড়া জেলা তৃণমূল চেয়ারম্যান শ্যামল সাঁতরা জানিয়েছেন প্রচারে আসার জন্যই এহেন কর্মকাণ্ড শুরু করেছেন ঐ বিজেপি বিধায়ক।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।