রাজ্য

আর প্রেস কনফারেন্স করবেন না মদন! দলনেত্রীর বকুনি খেয়ে জলে ভাসতে ভাসতে জানালেন কামারহাটির বিধায়ক!

কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্র বরাব‌র‌ই রঙিন। তৃণমূল কংগ্রেসের এই নেতা তাই লাইভে এলে ভক্ত-অনুরাগীদের ভিড় পড়ে যায়। কখনো চোখে রঙিন চশমা কখনো রঙিন পোশাক পরে তিনি হাজির হন লাইভে, নানান রকম চটকদার কথা বলে ভক্তদের মনভোলাতে তিনি ওস্তাদ। ঘনঘন লাইভে এসে ভক্তদের উজ্জীবিত করেন তিনি, আবার তাকে দীর্ঘ সময় লাইভে না দেখলে মন খারাপ হয়ে যায় ভক্তদের। তবে এইবার আর রোদচশমা বা রঙিন পোশাকে নয়, হিরোদের মত সুইমিংপুলে খালি গায়ে পোজ দিতে দেখা গেল মদন মিত্র কে।

হ্যাঁ গায়ে কোটি মাত্র বস্ত্রাবৃত হয়ে জলকেলি করতে করতে লাইভ করলেন তিনি। লাইভে এসে কামারহাটির বিধায়ক বললেন,“বৈজ্ঞানিকরা জ্ঞানসমুদ্রের নুড়ি কুড়ানোর কথা বলতেন কিন্তু ক্যাবিনেট মন্ত্রী থেকে দলের সর্বভারতীয় যুব তৃনমূলের প্রেসিডেন্ট হওয়া সত্ত্বেও রাজনৈতিক সমুদ্রের কূলের নুড়ি কুড়োতে পারিনি।” রাজনৈতিক সমুদ্রের কূলের নুড়ি কুড়োতে না পেরে সুইমিংপুলে নুড়ি কুড়োতে নেমে পড়েছেন তিনি- লাইভে এসে এমনটাই বলেছেন মদন বাবু।

এরপর লাইভে সংবাদমাধ্যমের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,“ দয়া করে আমাকে প্রেস করবেন না। অযথা আমাকে বিরক্ত করবেন না” মদনদার এই কথা বলার পেছনে যথেষ্ট কারণ রয়েছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক নেতৃত্ব। হ্যাঁ গত বৃহস্পতিবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকা দলীয় বৈঠকে দেরি করে পৌঁছান মদন দা আর স্বাভাবিকভাবেই দলনেত্রীর কাছে মৃদু বকুনি খেতে হয় তাকে। দেরির কারণ জিজ্ঞেস করা হলে মদন দা তৃণমূল নেত্রী কে জানান, সাংবাদিকদের সাথে কথা বলতে গিয়েই নাকি তার দেরি হয়েছে। এই কথা শুনে মমতাদি বলেন,“ সংবাদমাধ্যমের সাথে এত কথা বলার কি আছে?” এই কথার পরিপ্রেক্ষিতেই মদন দাস সাংবাদিক প্রেস কনফারেন্স না করার কথা বলেছেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীরা সাংবাদিক প্রেস কনফারেন্সকেই সংক্ষেপে প্রেস বলে থাকেন।

এখানেই শেষ নয় লাইভে দেখা যায় সুইমিংপুলে সাঁতার কাটছেন মদন দা। চিৎ হয়ে সুইমিংপুলে সাঁতার কাটতে কাটতে গুনগুন করে গান ধরেছেন তিনি। মদন দা গাইছেন ,“কেউ কথা কইও না কেউ শব্দ করো না” ইত্যাদি তারপরেই তার নিজের স্বভাব সিদ্ধ ভঙ্গিতে বলে ওঠেন “ওহ লাভলি।” তবে মদন দা যতই তাকে প্রেস করার কথা না বলুন তার চটকদার কথাবার্তা তার স্বভাব সিদ্ধ ভঙ্গীর জন্য তিনি সবসময়ই জনপ্রিয় হয়ে খবরের হেডলাইন এ থাকবেন।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।