রাজ্য

‘এটাকে শরীর খারাপ বলা যেতে পারে, শুনেছি নাকি লাভ অ্যাফেয়ার ছিল’! হাঁসখালি-ধর্ষণ কান্ডে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্তব্যে চাঞ্চল্য নেটদুনিয়ায়

সম্প্রতি বাংলায় একের পর এক ধর্ষণের ঘটনায় উত্তরপ্রদেশের ছায়া পশ্চিমবঙ্গ দেখতে পাচ্ছেন নেটিজেনদের একটি বড় অংশ। এবার তার মধ্যেই উঠে এলো হাঁসখালি ধর্ষণকাণ্ডের কথা। জানা গিয়েছে এক ১৪ বছরের কিশোরীকে নিজের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে ডেকে জোর করে ধর্ষণ করেছিল স্থানীয় তৃণমূল নেতার ছেলে। এরপর অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে ওই কিশোরীর মৃত্যু হলে তৃণমূল নেতা জোর করে তার দেহ শ্মশানে নিয়ে গিয়ে কেরোসিন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছেন।

বলাই বাহুল্য এই ঘটনা সামনে আসার পর তীব্র ক্ষুব্ধ হয়েছেন নেটিজেনদের একটি বড় অংশ। রাজ্যে আইন-কানুন নেই এমন মন্তব্য করতে দেখা গেছে তাদের। তবে এবার তার মধ্যেই গোটা বিষয়টি নিয়ে সংবাদমাধ্যমে সামনে নিজের মতামত জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত সোমবার বিশ্ববাংলা মেলা প্রাঙ্গণ থেকে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন মেয়েটি ৫ তারিখ মারা যায়, ১০ তারিখ অভিযোগ দায়ের করা হয়।

তাই এটি আদতে ধর্ষণ, নাকি শরীর খারাপ ছিল মেয়েটির, নাকি মেয়েটি গর্ভবতী ছিল, তা বলা অত্যন্ত কঠিন। তবে তার পাশাপাশি জোর দিয়ে তিনি দাবি করেছেন অভিযুক্ত যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল মৃত ওই তরুণীর। এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন কেউ যদি কারো সঙ্গে প্রেম করে তা আটকানো তার পক্ষে সম্ভব নয়।

পাশাপাশি গোটা বিষয়টিতে তৃণমূলকে টেনে আনতে বারণ করেছেন তিনি। কারণ তার মতে এখন গোটা বাংলাই তৃণমূল করে। বলাই বাহুল্য তার এই মন্তব্য অসংবেদনশীল বলে দাগিয়ে দিয়েছেন ক্ষুব্ধ নেটিজেনরা।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।