রাজ্য

‘গলায় গামছা দিয়ে এসে এদের থেকে ক্ষমা চেয়ে যান’! হাঁসখালি-ধর্ষণকান্ডে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তীব্র তোপ দাগলেন শুভেন্দু অধিকারী

সম্প্রতি হাঁসখালি ধর্ষণ কাণ্ড নিয়ে উত্তাল হতে দেখা গিয়েছে বঙ্গ রাজনৈতিক মহলকে। একজন ১৪ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণ করে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতার ছেলের বিরুদ্ধে। এর পরেই নেটিজেনদের ক্ষোভের আগুনে ঘি ঢেলেছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্তব্য। সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তিনি জানিয়েছিলে ধর্ষিতা কিশোরীর সঙ্গে ‘লাভ অ্যাফেয়ার’ ছিল ওই অভিযুক্ত যুবকের।

বলাই বাহুল্য তার এই মন্তব্যে তীব্র চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এবার ওই মৃতা কিশোরীর পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যেতে দেখা গেল রাজ্যের বিরোধী নেতা শুভেন্দু অধিকারীকে। এদিন সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে শুভেন্দু অধিকারী জানিয়েছেন তাদের দলের তরফে কোন কিছু ওই পরিবারের উপর চাপিয়ে দেওয়া হবে না।

তবে তারা যদি আইনি সহায়তা কিংবা নিরাপত্তা দাবি করেন তবে সেক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক এর সঙ্গে কথা বলে নিরাপত্তা দেওয়ার চেষ্টা করবেন তিনি। পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এক হাত নিয়ে আজ শুভেন্দু অধিকারী জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রীর উচিত গলায় গামছা দিয়ে ওই গরিব পরিবারের কাছে ক্ষমা চাওয়া, তার মন্তব্যের জন্য।

এদিন তৃণমূলের তরফে ধর্ষিতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যেতে দেখা গিয়েছিল মহুয়া মৈত্রকে। তবে তাকেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘কর্মচারী’ বলে কটাক্ষ করেছেন শুভেন্দু অধিকারী।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।