রাজ্য

স্কুলের পাশাপাশি এবার ‘পাড়ার শিক্ষালয়ে’ও মিলবে মিড-ডে মিল! বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

করোনার কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল রাজ্যের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলি। শেষ পর্যন্ত পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হতেই স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। তবে পঞ্চম থেকে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের যেহেতু অনেকেরই টিকাকরণ এখনো পর্যন্ত হয়নি তাই তাদের স্কুলে যেতে বারণ করা হয়েছে রাজ্যর তরফে। তবে তাদের পঠন-পাঠন যাতে বন্ধ না থাকে তাই এবার পাড়াতেই তাদের নিয়ে তৈরি হবে স্কুল, যার নাম দেওয়া হয়েছে ‘পাড়ার শিক্ষালয়’।

এ বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথের আদর্শকে কাজে লাগিয়ে খোলা জায়গায় গাছের নিচে শিক্ষকরা ‘পাড়ার শিক্ষালয়’ গড়ে তুলবেন। যেখানে দিনে দু ঘন্টা করে চলবে পঞ্চম থেকে সপ্তম শ্রেণীর পড়াশোনার কাজ। পাশাপাশি শনিবার করে বন্ধ থাকবে ‘পাড়ার শিক্ষালয়’। সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন স্কুলগুলিতে যেমন মিড-ডে-মিল দেওয়া হয় পাড়ার শিক্ষালয়েও সেভাবেই খাবার দেওয়া হবে।

তবে গোটা বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছিল। কি পদ্ধতিতে খাবার তৈরি হবে এবং তা বন্টন করা হবে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে, সে প্রশ্ন তুলেছিল বিরোধীরা। তবে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন ইতিমধ্যেই স্কুল শিক্ষা দপ্তরের সঙ্গে জেলাশাসকরা যোগাযোগ করেছেন যাতে গোটা বিষয়টি সুষ্ঠুভাবে পালন করা সম্ভব হয়। এদিন মুখ্যমন্ত্রী মিড ডে মিলের কথা ঘোষণা করতেই বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে রাজ্যের তরফে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।