রাজ্য

জুতোর বিজ্ঞাপন পোস্ট সাংসদ মহুয়া মৈত্রের! রুদ্রনীলের পর এবার মহুয়াও কি হ্যাকারদের খপ্পরে পড়লেন?

কিছুদিন আগেই বিজেপি নেতা তথা টলিউড অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষের ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট হ্যাক হয়েছে বলে দাবি করেন অভিনেতা স্বয়ং। রুদ্রনীলের পরে এইবার হ্যাকারদের কবলে পড়লেন সাংসদ মহুয়া মৈত্র। তার টুইটার অ্যাকাউন্টটি হ্যাক করা হয়েছে বলে এদিন সাংসদ নিজেই দাবি করেন। ভেরিফাইড একাউন্ট হওয়া সত্বেও কীভাবে তা হ্যাক হয় এই নিয়েই প্রশ্ন দানা বেঁধেছে।

গত শনিবার করিমপুরের তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা হয়। শনিবার মধ্যরাত অবধি এই অ্যাকাউন্ট থেকে একের পর এক জুতোর বিজ্ঞাপন শেয়ার করা হতে থাকে যা দেখে সন্দেহ হয় সাংসদের। বিষয়টি সম্পর্কে অবগত হওয়ার পরে টুইটারের দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি। এরপর একটি টুইট করে মহুয়া জানান তিনি নিজে সাইবার হামলার শিকার হয়েছেন। মহুয়া এইদিন টুইটে লিখেছিলেন, “My Twitter account has been hacked by a Phishing attack. Twitter will lock my account till they fix it. Thanks. -Mahua Moitra”

“একটি প্রতারণামূলক সাইবার হামলায় আমার টুইটার অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়েছে। টুইটার আমার অ্যাকাউন্টটি পুনরুদ্ধার করছে ততক্ষণ অবধি আমার অ্যাকাউন্টটি বন্ধ থাকবে। ধন্যবাদ।” আধুনিক যুগের প্রযুক্তি হাতের কাছে আসার ফলে যেমন তার অনেক সুবিধা রয়েছে তেমনি অনেক অসুবিধা ও তৈরি হয়েছে। আগে কাউকে কোন কিছু জানাতে হলে চিঠি বা ল্যান্ড লাইন কানেকশন ছিল। বর্তমানে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট, টুইটার, হোয়াটসঅ্যাপের দৌলতে যোগাযোগ ব্যবস্থা খুব সহজ হয়ে উঠেছে। তাই প্রত্যেকে এই সমস্ত অ্যাপের মধ্যে যুক্ত থাকেন। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করার অনেক ভালো দিকের পাশাপাশি অনেক খারাপ দিকও আছে, অ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়া তার অন্যতম।

যদিও নেতা-নেত্রীদের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যাক হওয়া এই নতুন নয়। এর আগে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের দপ্তরের অফিসিয়াল টুইটার একাউন্ট হ্যাক হয়েছিলো। হ্যাক করার পর সেখানে রীতিমতো একাধিক অ্যানিমেটেড ভিডিও ছবি পোস্ট করা হয়। এমনকি সেখানকার প্রোফাইল পিকচার বদলে ফেলা হয়। এছাড়া কিছুদিন আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা হয়েছিলো। এই অ্যাকাউন্টটি ছিল ব্লুটিকযুক্ত পরবর্তীকালে এই অ্যাকাউন্টটি উদ্ধার করা হয়। কিছুদিন আগে রুদ্রনীল ঘোষের ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট হ্যাক করে হ্যাকাররা দুটি পোস্ট করেন বলে রুদ্রনীল প্রকাশ্যেই দাবি করেন। উল্লেখ্য মহুয়া মৈত্র তার টুইটার অ্যাকাউন্টটি পুনরুদ্ধারের চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সংসদ নিজেই।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।