রাজ্য

‘টাকা দিচ্ছেনা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার, বকেয়া প্রায় ২০০ কোটি টাকা’! স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প থেকে এবার নিজেদের সরিয়ে নিতে চায় ২০টি নার্সিংহোম

নির্বাচনের আগের সাধারণ মানুষের জন্য স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের সূচনা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যা বেশ প্রশংসিত হয়েছিল বিভিন্ন মহলে। পাশাপাশি স্বাস্থ্য সাথী কার্ড এর মাধ্যমে সাধারণ মানুষ বিনামূল্যে বিভিন্ন চিকিৎসা সংক্রান্ত সুযোগ-সুবিধা পাবেন বলে জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

তবে এবার প্রতিশ্রুতি মত রাজ্য টাকা মেটাচ্ছে না এই অভিযোগ তুলে স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প থেকে নিজেদের সরিয়ে নিতে চাইল রাজ্যের কুড়িটি নার্সিংহোমম গোটা বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে একত্রিতভাবে আবেদনপত্র পাঠিয়েছেন তারা।

এদিন রাজ্যের কুড়িটি বেসরকারি নার্সিং হোম রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরে আবেদন পত্র দিয়ে জানিয়েছে প্রতিশ্রুতি মত স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের রোগীদের চিকিৎসা করলে কুড়ি দিনের মধ্যে সমস্ত টাকা মিটিয়ে দেওয়ার কথা রাজ্য সরকারের। কিন্তু এখনো পর্যন্ত প্রায় ২০০ কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের কাছে এবং সে টাকা তারা পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ করেছেন এই বেসরকারি হাসপাতালে কর্তৃপক্ষরা।

যে কারণে এবার প্রকল্প থেকে নিজেদের বার করে নিতে চান তারা। তবে রাজ্যের শাসক দলের তরফে জানানো হয়েছে এটি একটি ভুয়ো যুক্তি। কারণ রাজ্য এক মাসের মধ্যে সমস্ত বকেয়া হাসপাতালগুলিকে মিটিয়ে দিচ্ছে, বলে দাবি করেছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।