রাজ্য

‘ক্ষমতায় এলেই পুলিশকে দিয়ে গুলি করিয়ে মারব তৃণমূলের গুন্ডাদের’! প্রকাশ্য সভায় বিতর্কিত মন্তব্য বিজেপি বিধায়কের

চলতি সপ্তাহে কল্যাণীতে দলের সাংগঠনিক সভা চলাকালীন দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত হয়েছিলেন বিজেপির বনগাঁ সাংগঠনিক জেলা সভাপতি রামপদ দাস। এরপরে বিজেপির তরফ থেকে অভিযোগ করা হয়েছিল যে পুলিশের সহায়তা নিয়ে তৃণমূলের হার্মাদ বাহিনি গোটা কাণ্ড ঘটিয়েছে। জানা গিয়েছে উপস্থিত বিজেপি সদস্যদের মারধরের পাশাপাশি ভাঙচুর করা হয় জেলা সভাপতির গাড়িও।

এর প্রতিবাদে আজ অর্থাৎ বুধবার উত্তর 24 পরগনার চাঁদপাড়া যশোর রোড অবরোধ করতে দেখা গিয়েছে বিজেপি কর্মীদের। সেখানে উপস্থিত ছিলেন বনগাঁ দক্ষিণের বিধায়ক স্বপন মজুমদার। সেখানেই বক্তৃতা দিতে গিয়ে প্রকাশ্যে বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসতে দেখা যায় তাকে।

এদিন তিনি জানিয়েছেন তৃণমূল পুলিশের সহায়তায় এই দুষ্কর্ম করতে সক্ষম হয়েছিল। তবে বিজেপি যদি ক্ষমতায় আসে তবে সেই পুলিশকেই ব্যবহার করে তৃণমূলের হার্মাদ বাহিনিকে তিনি এনকাউন্টার করবেন, বলে দাবি করেছেন বিজেপি বিধায়ক। পাশাপাশি জানিয়েছেন বিজেপি পশ্চিমবঙ্গের লোকসভা এবং বিধানসভা কেন্দ্রের আসনে জয়লাভ করতে সক্ষম হয়েছিল। যা থেকে বোঝা যায় তাদের লোকবল এমন কিছু কম নয়।

বলাই বাহুল্য বিজেপি বিধায়কের প্রকাশ্য হুমকিতে চাঞ্চল্য পড়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে নেটিজেনদের একাংশ মনে করছেন বিজেপির জেলা সভাপতির উপর দুষ্কৃতীদের আক্রমণের ঘটনাও গ্রহণযোগ্য নয়। বিজেপি বিধায়কের হুমকির উত্তরে তৃণমূল এবার কি বলে তা জানতে মুখিয়ে রয়েছেন সাধারণ মানুষ।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।