রাজ্য

মমতার পরে মুখ্যমন্ত্রী হবেন অভিষেক বন্দোপাধ্যায়! দলের পূর্বসূরীরা কি তাকে মেনে নেবেন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে-উঠছে প্রশ্ন

তৃণমূল কংগ্রেসের বর্তমানে নেত্রী বলতে মানুষ একজনকেই বোঝেন, তিনি মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূল কংগ্রেসের মধ্যে সবথেকে জনপ্রিয় মানুষ তিনি, মানুষের পছন্দের মানুষ তিনি। মানুষের মধ্যে তার গ্রহণযোগ্যতা তার জনপ্রিয়তা প্রশ্নাতীত, তাই তৃণমূল কংগ্রেস ভোটে জেতা মানেই সবাই ধরে নেয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী! কিন্তু এরপর? মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরে তৃণমূল কংগ্রেসের পরবর্তী মুখ কে হবেন? কে হবেন তৃণমূলের প্রধান মুখ!- এই নিয়ে নানা রকম জল্পনা রয়েছে দলের অন্দরে!

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরে পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন এই নিয়ে মাঝেমধ্যেই নানান রকম জল্পনা চলে। তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুনাল ঘোষ সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করে জল্পনা কিছুটা উস্কে দেন আর তারপর থেকেই সাধারণ মানুষের মধ্যে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের পরবর্তী মুখ কে হবেন তা নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে! দলের অন্দরে বেশিরভাগ মানুষই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে পরবর্তী মুখ হিসেবে দেখতে চান বলেই খবর, এইবার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এই নিয়ে মুখ খুললেন।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় অসম সফরে গিয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে এই নিয়ে মুখ খুললেন। তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেককে দলের পরবর্তী মুখ সম্পর্কিত বিষয়ে জিজ্ঞেস করা হলে অভিষেক বলেন এই বিষয়ে তার কোনো মতামত নেই, কারণ তিনি দলের পরবর্তী উত্তরসূরি হওয়ার বিষয়ে কোনোরকম ভাবনা চিন্তায় করছেন না, দলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার বর্তমানে তার একমাত্র লক্ষ্য।

অভিষেকের কথায়,“এই বিষয়ে আমার কোন অভিমত নেই। যারা কথা বলছেন সেটা তাদের ব্যক্তিগত ব্যাপার। আমি প্রথম দিনেই বলেছি এ বিষয়ে কিছু জানি না। আমি সকলের মতামতকে সম্মান জানাই। দল আমাকে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দিয়েছে। সেই মত কাজ করছি। এখন ব্লক জেলায় তৃণমূলের প্রসার ঘটানোই আমার লক্ষ্য। আপাতত অসমের ৭-১০ টা জেলায় তৃণমূলকে প্রতিষ্ঠা করাই লক্ষ্য। সেটাই করছি।”

তবে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় না ভাবলেও দলের অন্দরে তাকে নিয়ে ভাবনাচিন্তা শুরু হয়ে গেছে। অনেকেই দিদির পরে দাদাকে অর্থাৎ অভিষেককে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চান আর দলের প্রবীণ নেতারা এই নিয়ে কিছু ভাবনা চিন্তায় করতে চান না, কারণ মুখ্যমন্ত্রী মানে তাদের কাছে কেবল একজনই তিনি তাদের দলের সুপ্রিমো মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাকে ছাড়া অন্য কাউকে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে ভাবার বিষয় তারা ভাবতেই পারেন না আর যাকে সম্ভাব্য মুখ হিসেবে ভাবা হচ্ছে তিনি নিজেকে দলের একজন সাধারণ কর্মী হিসেবেই ভাবছেন।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।