রাজ্য

উত্তরপ্রদেশের খুন-ধর্ষণের উপর পর্দা দিতেই যুক্তিহীনভাবে বাংলার নিন্দা করছেন যোগী! নিজের রাজ্যের আইন শৃঙ্খলাকে প্রশ্নের মুখে ফেলে বাংলাকে দেখতে হবে না, বলছেন তৃণমূল কংগ্রেস

উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বাংলার পরিস্থিতি নিয়ে সরব হলেন এইবার। তিনি এই রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। শুক্রবার বিধানসভায় বাজেট পেশের পর যোগী পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের আইন শৃঙ্খলার অবনতির বিষয়ে অভিযোগ করেন। পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বিজেপির তোলা অভিযোগের উল্লেখ করে তিনি বলেন,“বাংলায় ভোট পরবর্তী সময়ে ১২ হাজার হিংসার ঘটনা ঘটেছে। ২৯৪ টি বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে ১৪২ টি‌ কেন্দ্র থেকে এসব অভিযোগ করে উঠে আসছে। বিজেপি কর্মীদের ওপর আক্রমণ করা হয়েছে।”

উত্তরপ্রদেশের বিধানসভায় বাজেট অধিবেশন শুরু হলে বিরোধী দলনেতা অখিলেশের বিরুদ্ধেও মন্তব্য করতে দেখা যায় যোগীকে। পাল্টা মুখ খোলেন সমাজবাদী পার্টির সুপ্রিমো অখিলেশ যাদব ও।

উল্লেখ্য, সমাজবাদী পার্টি সুপ্রিমো অখিলেশ যাদবের হয়ে উত্তরপ্রদেশের নির্বাচনী প্রচারে এসেছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই প্রসঙ্গ তুলেও মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী কে খোঁচা দিয়েছেন যোগী আদিত্যনাথ। যোগীর এইসব মন্তব্য শোনার পরে তৃণমূল কংগ্রেস‌ও যে চুপ করে বসে থাকবে না তা আন্দাজ করেছিলেন রাজনীতিবিদরা। সেই আন্দাজ সত্য করে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে‌ও এইসব মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করা হয়েছে।

যোগী মন্তব্য প্রসঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে পরিস্কার বলা হয়েছে যে, নিজের রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে বারংবার প্রশ্নের মুখে পড়ার কারণে ও বিরোধী আক্রমণ থেকে বাঁচতে যুক্তিহীনভাবে বাংলার নিন্দা করছেন যোগী সরকার। যোগী তার নিজের রাজ্য উত্তরপ্রদেশে আইনশৃঙ্খলা ঠিক রাখতে পারেননি সেখানে একের পর এক খুন ধর্ষণের ঘটনা হয়ে যাচ্ছে, এইসব ঘটনায় পর্দা দিতেই অর্থাৎ আড়াল করতেই বাংলা সম্পর্কে নিন্দা করছেন যোগী।

এছাড়া তৃণমূল কংগ্রেসের আরও বক্তব্য, যোগী এখন যে সমস্ত তথ্য দিয়েছেন তার কোনো ভিত্তি নেই। যোগী সবসময় বাংলা সম্পর্কে মিথ্যে কথাই বলে থাকেন।

তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেছেন,“বাংলার উন্নয়নের কাছে দশ গোল খেয়ে মিথ্যাচার করছে বিজেপি। প্রয়াগরাজে কত জনকে পুড়িয়ে মারা হলো। পরিবার ধর্ষণের অভিযোগ তুলল। বাংলার চিন্তা না করে আগে সেই দিক গুলো দেখুক ওরা।”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, উত্তর প্রদেশ বাজেট অধিবেশনে এইদিন বিজেপির কেন্দ্র ও রাজ্যের ডবল ইঞ্জিন সরকারের প্রশংসা করে যোগী বলেন, ট্রিপল গতিতে কাজ হচ্ছে। যদিও অখিলেশ যাদব এর পর পাল্টা বিরোধিতা করেন।রাজ্যপালের ভাষণের ওপর আলোচনা করতে গিয়ে বিরোধী দলনেতা অখিলেশ যাদব উত্তর প্রদেশ রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি, নারী সুরক্ষা, কোভিড সার্টিফিকেটে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নাম ইত্যাদি নানা ইস্যুতে যোগী সরকারকে পাল্টা আক্রমণ করেন।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।