দেশ

‘মুসলিম মহিলাদের অবস্থা ভারতে ভয়াবহ’! হিজাব-বিতর্কে এবার মুখ খুললেন নোবেলজয়ী মালালা ইউসুফজাই

গত জানুয়ারি মাসে কর্নাটকের এক কলেজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ধর্মীয় অবমাননার অভিযোগ এনেছিলেন কয়েকজন মুসলিম ছাত্রী। তারা জানিয়েছিলেন হিজাব পরে ক্লাসে যেতে বারণ করা হচ্ছে তাদের। বলাই বাহুল্য সেই পরিস্থিতি বর্তমানে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। যার ফলে আগামী তিন দিনের জন্য বন্ধ রাখা হয়েছে কর্নাটকের সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

পাশাপাশি কর্নাটকের নিয়ম অনুসরণ করে এবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাব নিষিদ্ধ করতে চলেছে মধ্যপ্রদেশ সরকারও। তবে গোটা বির্তকের মধ্যেই এবার মুখ খুলতে দেখা গেল পাকিস্তানের নোবেলজয়ী সমাজকর্মী মালালা ইউসুফজাইকে। যিনি পড়াশোনা করার শাস্তি হিসেবে গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন পাকিস্তানি জঙ্গিদের হাতে।

এদিন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে নোবেলজয়ী মালালা জানিয়েছেন বর্তমানে ভারতে সংখ্যালঘু মুসলিমদের অবস্থা অত্যন্ত ভয়াবহ। পাশাপাশি সমাজের মূল স্রোত থেকে মুসলিম মহিলাদের ধীরে ধীরে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন তিনি। তিনি জানিয়েছেন মুসলিম মহিলাদের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের আবারো মূলস্রোতে ফিরিয়ে আনার জন্য আমাদের সকলকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

এদিন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তিনি আরো জানিয়েছেন যে ভাবে হিজাব এবং পড়াশুনার মধ্যে একটি বেছে নেওয়ার জন্য জোর করা হচ্ছে মুসলিম ছাত্রীদের, তা গ্রহণযোগ্য নয়। বলাই বাহুল্য তার এই মন্তব্য বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে আন্তর্জাতিক মহলে। পাশাপাশি কর্নাটকের ঘটনা যে এবার আন্তর্জাতিক দৃষ্টি আকর্ষণ করবে তাও বেশ বুঝতে পারছেন নেটিজেনরা।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।