বলিউড

‘আমারও যদি সাতটা প্রাক্তন থাকত, আমি সাতদিন দেখা করতাম’, আজও দুই প্রাক্তন স্ত্রীর সঙ্গে সপ্তাহে একদিন মিলিত হন আমির খান, শুনে প্রতিক্রিয়া নেটিজেনদের

বিনোদন হল এমন এক ধরনের কাজ যা দর্শক বা শ্রোতাদের সকল সময় আকর্ষণ করে থাকে। তাই বিনোদন জগতের মানুষদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে সকল সময়ই আলোচনা করা হয়। আবার যদি পান থেকে চুন খসে তাহলে বিতর্ক কিন্তু তাদের থেকে পিছন ছাড়ে না। এই মুহূর্তে বলিউড অভিনেতা আমির খান কে নিয়ে বেশ সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে।

সম্প্রতি আমির খান এবং তার দ্বিতীয় স্ত্রী কিরণ রাও নিজেদের বিচ্ছেদের খবর ভাগ করে নিয়েছেন। ‘হ্যাপি গো লাকি’ এই জুটির এভাবে আলাদা হয়ে যাওয়া বেশ অবাক করেছে সকলকে। লাগান ছবির সেটে প্রথম আমির খানের সাথে কিরনের আলাপ হয়। তারপর সেখান থেকে বন্ধুত্ব তারপর প্রেম। দীর্ঘ ১৫ বছর সংসার করার পর অবশেষে তারা দুজন দুজনের থেকে আলাদা হয়ে গেলেন। যদিও কেন একে-অপরের থেকে আলাদা থাকার সিদ্ধান্ত নিলেন সে বিষয় নিয়ে মুখ খোলেননি কেউই। শুধু জানিয়েছেন তাদের মধ্যে অনুভূতিটা নাকি হারিয়ে গেছে তবে এখনো কিন্তু বন্ধুত্ব তাদের মধ্যে অটুট আছে।

সম্প্রতি পরিচালক কারণ জোহার, আমির খান এবং করিনা কাপুর একটি আড্ডায় বসেছিলেন। সেখানে আমির খানের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে আলোচনা শুরু হয়। সেই আলোচনাতে আমির খানের প্রাক্তন স্ত্রী রিনা দত্ত এবং কিরণের কথা উঠে আসে। কিরণের সাথে বিয়ের আগে আমির খানের সাথে রিনার বিয়ে হয়। তাদের একটি মেয়ে এবং একটি ছেলে রয়েছে। তবে ওইদিনের ওই আড্ডায় আমির খান স্পষ্ট জানিয়েছেন যে প্রাক্তনদের প্রতি তাঁর মনে এখনো ভালোবাসা সম্মান এবং বন্ধুত্ব একই রকম রয়ে গিয়েছে। প্রাক্তনদের সাথে তিনি সপ্তাহে একবার সময় কাটান। প্রসঙ্গত কিরণের সাথে বিচ্ছেদের পরও আমির খান ও কিরণকে একসাথে দেখা গেছে।

এই খবরটি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হওয়ার পর মিডিয়াবাসীরা উত্তাল হয়ে পড়েন। কেউ কেউ মন্তব্য করেছেন যে তাদের যদি এইরকম প্রাক্তন থাকতো কি ভালই না হতো। কেউ কেউ আবার বলেছেন তাদের সাত দিনে সাতটা প্রাক্তন চাই। কেউবা বলছে ৭ দিনে ৬ টা প্রাক্তন হলেই হবে কারণ ৬ দিন প্রাক্তনদের সঙ্গে দেখা করার পর একটা দিন বিশ্রাম নিয়ে কাটাবেন।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।