বলিউড

আলিয়ার ছবি দেখে বিড়ি খাওয়া এবং যৌ’নতা শিখছে ছোটরা! ছোট্ট ‘গাঙ্গুবাঈ’কেও ছেড়ে কথা বললেন না কঙ্গনা

বিনোদনবিষয়ক হোক কিংবা রাজনীতি যেকোন বিষয়ে নিজের বক্তব্য পেশ করতে পিছপা থাকেন না কঙ্গনা রানাউত। তিনি বলিউডের স্বঘোষিত কুইন। কয়েকদিন আগেই শকুন বাত্রা পরিচালিত গেহরাইয়ান ছবিকে ‘পর্ণ ছবি’ বলেছেন। সম্প্রতি আলিয়া ভাট অভিনীত ‘গাঙ্গুবাঈ কাথিয়াওয়াদি’ ছবি নিয়ে মুখ খুলেছেন। ছবি নিয়ে কথা বলে আবারো বিতর্কের ঝড় তুলেছেন এই অভিনেত্রী।

এতদিন ধরে আলিয়া ভাটকে তথাকথিত যে ধরনের চরিত্রে দেখা যেত, গাঙ্গুবাইয়ে একেবারে ভিন্ন চরিত্রে, ভিন্নসাজে হাজির হবেন অভিনেত্রী। ইতিমধ্যেই ছবির ট্রেলার মুক্তি পেয়েছে। ছবির ট্রেলার মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে দর্শকমহলে। ছবিতে তার লুক ইতিমধ্যেই প্রশংসিত হয়েছে সকলের কাছে। এমনকি ছবিতে বেশ কিছু সাহসী সংলাপ রয়েছে অভিনেত্রীর মুখে, যার কিছু ছোট ছোট অংশ ট্রেলারের মাধ্যমেই সামনে এসেছে সকলের।

গুজরাটের কাথিয়াওয়ারের বাসিন্দা ছিলেন গাঙ্গুবাই। মাত্র ১৬ বছর বয়স থেকেই তিনি জীবনের সাথে লড়াই করতে শিখে গিয়েছিলেন। ছেলেবেলায় অভিনেত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখত সে। অভিনেত্রী হতে চাওয় মেয়েটা শেষপর্যন্ত পতিতা হয়ে যায় পুরুষতান্ত্রিক সমাজের জন্য। উল্লেখ্য, এই ছবিতে একজন পতিতার চরিত্রে দেখা যাবে আলিয়া ভাটকে। ছবিতে তার চরিত্র বেশ বোল্ড, তা ট্রেলার দেখেই স্পষ্ট হয়েছে। এই ছবির হাত ধরে গাঙ্গুবাইয়ের জীবনের কঠিন লড়াইয়ের গল্প ফুটে উঠবে পর্দায়। ছবির পরিচালক সকলের চিরপরিচিত সঞ্জয় লীলা বানসালি।

সম্প্রতি এই ছবির ট্রেইলা মুক্তি পাওয়ার পরেই এক খুদে অভিনেত্রীর কিছু সংলাপের সাথে একেবারে সঠিকভাবে ঠোঁট মিলিয়েছে। সংলাপ বলার পাশাপাশি একেবারে বোল্ড লুক সেট করা হয়েছে তার। সম্প্রতি গোটা সোশাল মিডিয়ায় কিয়ারা নামক একটি ছোট বাচ্চা মেয়ে আলিয়া ভাটকে নকল করে ভাইরাল হয়েছে। নেটমহল তাকে নাম দিয়েছে ছোটি আলিয়া। সম্প্রতি সেই বাচ্চার ছবি শেয়ার করেই নিজের বক্তব্য পেশ করেছেন কঙ্গনা রানাউত।

তার বক্তব্য, গোটা দেশজুড়ে বহু শিশুর যৌন হেনস্থা করা হয় এখনো। এমন পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে একজন পতিতার চরিত্রের সংলাপ বলা কিংবা তার মত করে সাজা কি উচিৎ একজন বাচ্চার? তার এই বক্তব্য আবারও বিতর্ক ছড়িয়েছে গোটা নেটদুনিয়ায়।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।