টলিউড

নিজের প্রতিভার জোড়ে টলিউডের সেরা অভিনেত্রী হয়েছেন কোয়েল মল্লিক, তবুও জোটেনি মহানায়িকা সম্মান

টলিউডের প্রসেনজিৎ ঋতুপর্ণার পরই যে জুটির নামটি সামনে আসে তারা হলেন জিৎ কোয়েল জুটি। বিগত ২ দশক ধরে ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে যুক্ত কোয়েল। কোয়েল মল্লিক হলেন একজন প্রতিভাবান শিল্পী।

কোয়েল মল্লিক তার অভিনয়ের দক্ষতা পেয়েছেন জন্মসূত্রে তার বাবার কাছ থেকে। ‌ তার বাবা রঞ্জিত মল্লিক বিগত পাঁচ দশক ধরে বাংলা টলিউডের সাথে যুক্ত। তার অভিনীত প্রতিটি ছবি প্রায় হিট। তিনি এত বড় স্টার হওয়া সত্বেও মনে একটু অহংকার নেই। রঞ্জিত মল্লিকের মেয়েও হয়েছে ঠিক তারই মত। পোশাক-আশাক, আচার-আচরণ থেকে ব্যক্তিগত স্বভাব-চরিত্রের দিক থেকেও রঞ্জিত মল্লিকের মেয়ে গুণী।

সেই উত্তম কুমারের সময় থেকে পরবর্তী সময়ের কমার্শিয়াল সিনেমা জুড়ে আছেন রঞ্জিত মল্লিক। টলিউডের তার ভালই দাপট আছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও কোয়েল মল্লিক যখন সিনেমাই নামেন তখন কিন্তু তার পাশে দাঁড়াননি রঞ্জিত মল্লিক। তিনি চেয়েছিলেন তার পরিচয় নয়, কোয়েল মল্লিক নিজের পরিচয়ে মাথা তুলে দাঁড়াক।

এমনকি তিনি পরিচালক হরনাথ চক্রবর্তীকে বলেছিলেন যে দুদিন কোয়েলকে দেখতে তারপরে তাকে বাদ দিয়ে নতুন নায়িকা নিতে। এই প্রসঙ্গেই রঞ্জিত মল্লিক একবার বলেছিলেন যে কোয়েলের ছবিতে অভিনয় করার নিয়ে আমার কখনোই কোনো আপত্তি ছিল না। তবে মনে মনে একটা ভয় ছিল যদি ছবি সাফল্য না পায় তবে ওর মনের ওপর চাপ পড়বে এর সাথে প্রযোজকদেরও বহু টাকার ক্ষতি হবে। সেই জন্য হরনাথ চক্রবর্তী কে বলেছিলাম, ‘হর, দু-একদিন শুটিং দেখবি। তারপর বাদ দিয়ে নতুন নায়িকা নিয়ে নিবি।”

বাবার কথা শুনে অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিক বলেছিলেন, “বাবা, সবাই সবার ছেলে মেয়েকে সাহায্য করে আর তুমি আমায় ছবিতে নিতে বারণ করছো!” এর পরিপ্রেক্ষিতে রঞ্জিত মল্লিক বলেছিলেন, “রঞ্জিত মল্লিকের মেয়ে বলে দর্শকরা প্রথম ছবিটা দেখতে যাবেন। বড় জোর দ্বিতীয় ছবিটাও দেখতে যাবেন। তারপর আর তুমি রঞ্জিত মল্লিকের মেয়ে নও। তোমাকে প্রমাণ করতে হবে তুমি, তুমিই। কোনও বাবা-মা তার ছেলেমেয়েকে সবটা হাতে ধরে করিয়ে দিতে পারে না। শেখাতে পারে বড়জোর।”

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।