কলকাতা

কলকাতাতে চালকহীন অটোর মধ্যে তাজা বোমা সহ পিস্তল কার্তুজ উদ্ধার, নাশকতার ছক নিয়ে উঠছে প্রশ্ন

একটার পর একটা চাঞ্চল্যকর ঘটনা পরপর ঘটে যাচ্ছে রাজ্যে। গত শুক্রবারই কুলতলিতে অস্ত্র কারখানার খোঁজ মিলেছিলো, আর সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই খাস কলকাতার বুকে অটোর ভেতর থেকে উদ্ধার হল তাজা বোমা। ২৪ ঘন্টার মধ্যেই পরপর এরকম দুটি ঘটনা ঘটায় রীতিমতো উদ্বিগ্ন হয়ে উঠেছেন এলাকার মানুষজন। শুক্রবার রাত্রে হরিদেবপুর থানা এলাকায় একটি অটোর মধ্য থেকে বেশ কতকগুলি তাজা বোমা, পিস্তল ও কার্তুজ উদ্ধার করে হরিদেবপুর থানার পুলিশ। ঠিক কী ঘটেছিল এইদিন?

শুক্রবার এলাকার একটি ক্লাবের কাছে অনেকক্ষণ ধরে রাখা ছিল একটি অটো। অটোর ভেতরে কোনো চালক ছিল না। প্রথমদিকে চালকহীন অটোকে দেখে কারও মনে কোন‌ও সন্দেহ হয় নি, স্থানীয়রা ভেবেছিলেন অটোরিকশা চালক হয়তো কোথাও গিয়েছেন এক্ষুনি চলে আসবেন। কিন্তু দীর্ঘক্ষণ ধরে অটোটি সেখানে রাখা ছিলো, কেউই আসছিলেন না। তখন স্থানীয় মানুষজনদের মধ্যে অটোটিকে নিয়ে সন্দেহের সৃষ্টি হয়। এরপর সেই অটো থেকে উদ্ধার হয় তাজা বোমা, পিস্তল সহ কার্তুজ।

স্থানীয় বাসিন্দাদের কথায়, প্রথমে বিষয়টিকে খুব একটা গুরুত্ব না দিলেও দীর্ঘক্ষন অটোটিকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে সন্দেহ হয় তাদের, তখন তারা সামনে গিয়ে দেখেন পিছনের সিটের সামনে কিছু জড়ো করা রয়েছে। এরপর তারা থানায় খবর দেন।

থানা থেকে পুলিশ এসে অটো থেকে ১৯ টি তাজা বোমা, ১ টি পিস্তল সহ ২ টি কার্তুজ উদ্ধার করে। কে বা কারা এগুলো অটোর মধ্যে রেখেছে তা নিয়ে রীতিমত চাঞ্চল্য ছড়িয়ে যায় এলাকাজুড়ে।
এইভাবে ফাঁকা রাস্তার মধ্যে অস্ত্র ভর্তি অটো রেখে চলে যাওয়ার পিছনে কী পরিকল্পনা থাকতে পারে তা নিয়ে‌ ছড়িয়েছে আতঙ্ক।পুরো ঘটনাটা‌ই খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

উল্লেখ্য কলকাতার অত্যন্ত জনবহুল এলাকা হরিদেবপুর। শুক্রবার রাতে হরিদেবপুর থানার সামনে যে রাস্তা সেখান থেকে কিছুটা দূরেই অটোটি রাখা ছিল। একসাথে এত গুলি বোমা, অস্ত্রের খোঁজ পাওয়ার পর ধন্দে পড়েছে পুলিশ‌ও, তবে কি কোথাও বড় কোনো নাশকতার ছক কষা হচ্ছে উঠছে প্রশ্ন। তদন্তে নেমেই পুলিশ চালকের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে। স্থানীয়রা কেউই বলতে পারছেন না যে অটোর মালিক কে বা এই অটোটি এলাকার কারো অটো কিনা।তবে জানা যাচ্ছে, যেখানে অটোটি দাঁড় করানো ছিলো সেখানে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা রয়েছে সেই সিসিটিভি ফুটেজ‌ খতিয়ে দেখবে পুলিশ।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।