বাংলা সিরিয়াল

‘মিঠাইয়ের ভিলেন গুলো হীরের টুকরো, দেখলে জ্বালা ধরে না বরং মায়া হয়, ওমি থেকে প্রমিলা লাহা সব ক্ষেত্রেই এক’-শুধু গল্প বা রোমান্সেই নয় ভিলেন নির্বাচনেও মিঠাই ইউনিক বলছেন দর্শকদের একাংশ

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক মিঠাই। এই ধারাবাহিক হলো বঙ্গ সেরা। এক দুইবার নয় প্রায় ৫৬ বার বেঙ্গল টপার হয়েছে এই ধারাবাহিক। এই ধারাবাহিকের গল্প সমকালীন সমস্ত গল্পের থেকে আলাদা। এই ধারাবাহিকের অভিনবত্ব এখানে এই যে অন্যান্য ধারাবাহিকে যেখানে ঘরোয়া বিভিন্ন কুটকাচালী, পরকীয়া ইত্যাদি বিষয় দেখানো হয়, সেখানে এই ধারাবাহিক বিভিন্ন কুটকাচালী, পরকীয়া থেকে মুক্ত। এই ধারাবাহিকে যৌথ পরিবারের বন্ডিং দেখানো হয়।

মিঠাই ধারাবাহিকে সিদ্ধার্থ ও মিঠাইয়ের বন্ডিং দেখানোর পাশাপাশি হল্লা পার্টির হইহুল্লোড় দেখানো হয়। এই কিছুদিন আগে মিঠাই ও সিদ্ধার্থের মধ্যে রোমান্টিক দৃশ্য দেখানো হলেও সেই রোমান্টিক দৃশ্যের মধ্যে কোন অন্তরঙ্গতা দেখানো হয় নি। যা নিয়ে দর্শকদের এক অংশের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হলেও আরেক অংশের মানুষের বক্তব্য ছিল যে, এই ধারাবাহিকটি ৮ থেকে ৮০ সকল দর্শকদের কথা ভেবে তৈরি করা হয়েছে তাই এই ধারাবাহিকের মধ্যে কোন রকম অন্তরঙ্গতা বা ঘনিষ্ঠতা দেখানো হয় নি আর এই কারণে এই ধারাবাহিক এত বেশি ইউনিক।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একজন নেটিজেন কমেন্ট করেছেন যে, “মিঠাইয়ের এই ভিলেনগুলো না এক একটা হীরের টুকরা বড্ড মায়া হয়ে যায় এদের জন্য আজকে মিঠাইরানীর মতো প্রমিলা লাহাকে দেখে আমারো কেমন যেন কষ্ট লাগছিল..এর আগে ওমির জন্যও এরকম কষ্ট হয়ছিল হাসি-খুশি ওয়ান & ওনলি প্রমিলা লাহা কেমন মিইয়ে গেছে
অন্যান্য সিরিয়ালের সব ভিলেনদের দেখলেই রাগ লাগে আর তারা শাস্তি ফেলে খুব খুশি লাগে কিন্তু মিঠাই সিরিয়ালের সব ভিলেনদের দেখলেই মায়া লাগে আর ওরা শাস্তি ফেলেও খুব কষ্ট লাগে মিঠাইয়ের ভিলেনদের জন্য এই মায়া লাগার সাইন্সটা কেউ বুঝাও আমারে”- এই পোস্টে একজন কমেন্ট করে লিখেছেন এই কারণেই মিঠাই এত ইউনিক।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।